বয়স ৭৯, খুন করেছেন ৯৩ নারীকে

Spread the love

মার্কিন এক নাগরিক যুক্তরাষ্ট্রের ৯০ জনের বেশি নারীকে হত্যা করেছেন। নিজে সেসব হত্যাকাণ্ডের কথা তদন্ত সংস্থার কাছে স্বীকার করেছেন তিনি। মার্কিন তদন্ত সংস্থা ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন এই তথ্য জানিয়ে বলছে, ওই ব্যক্তি যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়ঙ্কর সিরিয়াল কিলার।

ঘাতক ওই ব্যক্তির নাম স্যামুয়েল লিটল। বয়স ৭৯ বছর। ২০১২ সাল থেকে তিনি কারাবন্দী। গত বছর স্যামুয়েল তদন্ত কর্মকর্তাদের কাছে স্বীকার করেছেন যে, তিনি ১৯৭০ থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত প্রায় ৯০ জন নারীকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছেন।

গত রোববার ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (এফবিআই) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানিয়েছে যে, স্যামুয়েল যেসব হত্যার কথা নিজ মুখে স্বীকার করেছেন তা বিশ্বাসযোগ্য বলে মত দিয়েছেন ফেডারেল অপরাধ বিশ্লেষকরা। এখন পর্যন্ত ৫০ জনের হত্যার স্বীকারোক্তি যাচাই করেছেন কর্মকর্তারা।

তদন্ত কর্মকর্তারা ফ্লোরিডা, আরকানসাস, কেন্টাকি, নেভাদা ও লুজিয়ানার পাঁচটি মামলার নতুন তথ্য জানিয়েছেন। ক্যালিফোর্নিয়ায় ৭৯ বছর বয়সী স্যামুয়েল লিটল বেশ কয়েকটি মামলায় যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত। স্যামুয়েল নিজেই জানিয়েছেন ৯৩ জনকে শ্বাসরোধে হত্যা করেছেন যাদের বেশিরভাগ নারী।

লিটলের হাতে যারা হত্যার শিকার হয়েছেন তাদের অনেকেই প্রান্তিক জনগোষ্ঠী। তাদের অনেকেকে হত্যার পেছনে কোনো কারণই নেই এবং অনেকের হত্যার ব্যাপারটিকে দুর্ঘটনা হিসেবে চালিয়ে দেয়া হয়েছে। স্যামুয়েল যাদের হত্যা করেছেন তাদের অনেকের লাশ খুঁজে পাওয়া যায়নি।

গত রোববার সংবাদ বিজ্ঞপ্তির সঙ্গে হত্যার শিকার ৩০ জনের আঁকানো ছবিও প্রকাশ করেছে। মজার বিষয় হলো ছবিগুলো ঘাতক স্যামুয়েল লিটলের আঁকানো। তিনি কারাগারে বসে এসব করেছেন। ভৌতিক সেই ছবিগুলোর বেশিরভাগ কৃষ্ণাঙ্গ নারীর।

এফবিআই স্যামুয়েলকে জিজ্ঞাসাবাদ করার সময় অর্থাৎ হত্যার স্বীকারোক্তি দেয়ার ভিডিও চিত্র ধারণ করেছে। কর্মকর্তাদের কাছে ঘাতক বলেছে, ১৯৯৩ সালে সে এক নারীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর মরদেহটি ঢালে পেচিয়ে জনশূন্য একটি রাস্তায় ফেলে দেয়। এরকম অসংখ্য হত্যার বর্ণনা দিয়েছে লিটল।

আপনার মন্তব্য

Spread the love