সংসার জীবন সুখী করার ৫ মন্ত্র


সংসার জীবন সুখী করার ৫ মন্ত্র

সংসার মানেই সুখ-দুঃখ। সংসার জীবনে স্বামী-স্ত্রীর সব সময় সব বিষয়ে মিলে যাবে তা নয়। চিন্তা-চেতনা ও কাজের অমিলের কারণে বর্তমানে হারহামেশা সংসার ভেঙ্গে যাচ্ছে। কিন্তু পাঁচটি বিষয় মেনে চললে সংসার জীবনটা সুখের করে গড়ে তোলা সম্ভব।

১. স্বচ্ছতা
সুখী সংসার জীবনের মূল মন্ত্র হচ্ছে স্বচ্ছতা। স্বচ্ছতা ছাড়া সংসার জীবনে সুখী হওয়া যায় না। স্বামী-স্ত্রীর নিজেদের সম্পর্কের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা রাখুন। স্বচ্ছতার পাশাপাশি নিজেদের মধ্যে ভালো বোঝাপড়া বজায় রাখুন। কোনো ভুল কাজ করে ফেললে তা সঙ্গীর কাছে শেয়ার করুন এবং ক্ষমা প্রার্থনা করুন।

২. প্রসংশা করুন
সঙ্গীর সাজগোছ ও পোশাকের প্রসংশা করুন। সাজসজ্জা ছাড়াও রান্না ও অন্যান্য কাজের প্রসংশা করুন। একে অন্যকে মূল্যায়ন করলে সংসার জীবনটা ফুলে ফুলে ভরে উঠবে।

৩. রুটিন
যত ব্যস্ত থাকুন না কেন নিয়মিত ফোনে, ফেসবুকে কিংবা টুইটারে প্রিয়জনের খোঁজ খবর রাখুন। বিয়ের বয়স কয়েক বছর হয়ে গেছে বলে, সম্পর্ক একঘেয়ে হতে দেবেন না। যত ব্যস্ত থাকুন না কেন, নিজেদের বিবাহ বার্ষিকী পালন করুন, এবং সঙ্গীর জন্মদিনে শুভেচ্ছা বার্তা ও উপহার দিন। সংসারের অন্যান্য কাজ রুটিনমাফিক করুন।


৪. খোলামেলা আলোচনা
নিজেদের মধ্যে কোনো কারণে ভুল বোঝাবুঝি হলে খোলামেলা আলোচনা করুন। খোলামেলা আলোচনা নিজেদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি দূর করে, সম্পর্ক মজবুত করে। এছাড়া ভালোলাগা-মন্দলাগা বিষয়গুলো নিজেদের আলোচনা করলে

৫. সাহায্য করা
স্ত্রীকে ঘরের ছোট ছোট কাজে সাহায্য করতে পারেন। হতে পারে বাচ্চাকে গোসল করানো, কাপড় গোছানো, কলিং বেলে শব্দ হলে গেট খুলে দেয়া কিংবা রান্নার সময় সবজি কেটে দেয়া। শুধুমাত্র স্বামী স্ত্রীর কাজে সাহায্য করলে সংসার সুখী হবে তা কিন্তু নয়। স্ত্রীকেও স্বামীর কাজে সাহায্য করতে হবে। স্বামী অফিসে বের হওয়ার সময় টাই, ব্যাগ এগিয়ে দেয়াসহ অন্যান্য কাজে সাহায্য করতে পারেন। একইভাবে স্ত্রী যদি কর্মজীবি হয় তাকেও সাহায্য করতে পারেন। একে-অপরের কাজে সাহায্য করলে দুজনের মধ্যে চমৎকার সম্পর্ক তৈরি হবে।

আপনার মন্তব্য

Recommended For You