plan cul gratuit - plan cul toulouse - voyance gratuite amour

এই বলিউড নায়িকারা স্নাতক পাসও করেননি!

Spread the love

এই বলিউড নায়িকারা স্নাতক পাসও করেননি!

বিনোদন দুনিয়ার দিকে চোখ বুলালেই দেখতে পাবেন চাকচিক্য, গ্ল্যামার, খ্যাতি আর অর্থ; সেখানে স্নাতক-স্নাতকোত্তর টাইপের প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষাটা যে খুব জরুরি এমন নয়। কোনো কোনো সেলিব্রেটি সম্ভবত এসবে বিশ্বাসও করেন না। ঐশ্বরিয়া রাই থেকে কারিনা কাপুর, অনেক ডিভাই সাফল্যের শিখরে পৌঁছেছেন, কিন্তু মাঝপথে লেখাপড়া ছেড়ে দিয়ে চরম মূল্য দিয়েছেন।

এক ঝলকে দেখে নেওয়া যাক, এই সেলিব্রেটিরা স্নাতক পাস করতে পারেননি :

কারিনা কাপুর


সেই ছোট থেকে অভিনয়ের দিকেই মনোযোগ কারিনা কাপুরের। বলিউডে সাফল্যের তুঙ্গে এ নায়িকা। মাত্র ২০ বছর বয়সে বলিউডে অভিষেক হয় কারিনার। সে সময় তিনি মিথিবাই কলেজে বাণিজ্যে পড়াশোনা করতেন। টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদন মতে, পরে আইনের প্রতি আগ্রহ জন্মে কারিনার, ভর্তি হন সরকারি আইন কলেজে। কিন্তু বলিউডে ক্যারিয়ার চালিয়ে যাওয়ার জন্য মাঝপথে ছেড়ে দেন লেখাপড়া।

সোনম কাপুর


বি-টাউনের অন্যতম সরব অভিনেত্রী সোনম কাপুর। মনখোলা বক্তব্যের জন্য ইন্ডাস্ট্রিতে পরিচিতি তাঁর। একবার সোনম বলেছিলেন, স্নাতক শেষ করতে পারেননি তিনি। বার্তা সংস্থা আইএএনএসকে সোনম বলেছিলেন, ‘আমার বড় ভুল হলো লেখাপড়া শেষ করতে পারিনি। কিন্তু এ বছরই স্নাতক শেষ করার ইচ্ছে আছে। সাহিত্যে আন্ডারগ্র্যাজুয়েট ডিগ্রির জন্য আমি ফরম পূরণ করতে চলেছি। আমার কাছে এটাই বড় ভুল।’

ঐশ্বরিয়া রাই


সাবেক বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন পুরো পৃথিবী জয় করলেও অভিনয়ের জন্য মাঝপথে লেখাপড়া ছেড়ে দেন। জয় হিন্দ কলেজে পড়তেন, স্থাপত্যে পড়া শুরু করেন। কিন্তু মডেলিং আর বিজ্ঞাপনে সময় দিতে গিয়ে লেখাপড়া শেষ করা হয়নি তাঁর।

দীপিকা পাড়ুকোন


বলিপাড়ার অন্যতম শীর্ষ অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন বেঙ্গালুরুর মাউন্ট কারমেল কলেজে পড়তেন, কিন্তু সেখানকার পাঠ চুকাতে পারেননি। টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদন জানাচ্ছে, পরে ইন্দিরা গান্ধী ন্যাশনাল ওপেন ইউনিভার্সিটিতে একটি কোর্সে ভর্তি হন দীপিকা। কিন্তু ব্যস্ত শিডিউলের কারণে লেখাপড়া শেষ করতে পারেনি।

কারিশমা কাপুর


সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিতে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার জন্য স্কুল ছেড়েছিলেন কারিশমা কাপুর। মাত্র ১৬ বছর বয়সে অভিনয়ে অভিষেক হয় এ সুন্দরীর। এর পর আর লেখাপড়া করা হয়নি।

সূত্র : ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস টাইমস

আপনার মন্তব্য

Spread the love