plan cul gratuit - plan cul toulouse - voyance gratuite amour

বাম আমলে বিঘাপ্রতি, তৃণমূলের আমলে কাঠা প্রতি তোলা নিত শাজাহান

Spread the love

বসিরহাট লোকসভার অন্তর্গত সন্দেশখালী অঞ্চল। এই অঞ্চলে জলের মধ্যে রয়েছে সোনা অর্থাৎ মাছ। মাছই এই অঞ্চলে সোনার সমান। কারণ এখানকার মূল জীবিকায় হল মৎস্য চাষ। এখানকার মানুষজন ভেড়ির সাহায্যে প্রচুর পরিমাণে মৎস্য চাষ করে আর সেই মাছ চলে যায় কলকাতা শহর সহ রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায়। অনেকের মতে এই অঞ্চলে টাকা উড়ে বেড়ায় শুধুমাত্র ধরার কৌশল জানতে হবে। আর এবার তৃণমূল কংগ্রেসের অনেক নেতাকর্মীরা বলছে সেই টাকা ধরার সঠিক কৌশলটাই শিখে ফেলেছিল সন্দেশখালি খুনের মূল অভিযুক্ত শাজাহান।

সেখানকার এক প্রবীণ তৃণমূল কংগ্রেস নেতা জানিয়েছেন, ইট ভাটা থেকে শুরু করে মাছের ভেড়ি সব জায়গায় তোলা আদায় করে শাজাহান বাহিনী। আগে যখন রাজ্যের ক্ষমতায় বাম ছিল সেই সময় থেকে এই সমস্ত অঞ্চলে তোলা আদায় করছে শাজাহান বাহিনী। আগে তোলা আদায়ের হিসাব ছিল বিঘা প্রতি এখন তৃণমূল আমলে সেটা এসে দাঁড়িয়েছে কাঠা প্রতি। এলাকার মাছ চাষীরা জানিয়েছেন যে, এখনে প্রতিটি মাছের ভেড়ি নিলাম হয় শাহাজান এর কথায়। আর প্রত্যেক মাছ চাষীকে শাজাহানের কাছে গিয়ে প্রতি মাসে তোলার টাকা জমা দিয়ে আসতে হয়।

এলাকার মানুষজন জানান যদি কোনো মাছ ব্যবসায়ী সেই তোলার টাকা দিতে অস্বীকার করত তাহলে তার কাছে আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে গিয়ে লুটপাট করতো শাজাহানের লোকজন। এমনকি অনেক ভেড়ির মালিকের কাছে জোরপূর্বক ভেড়ি লিজ নিয়ে নিত ২০ – ৩০ বছরের জন্য। এমনকি ওই এলাকায় রয়েছে অনেক ইটভাটা আর সেই সমস্ত ইটভাটাতেও তোলা আদায় করতো শাজাহানের লোকজন।

এলাকার ব্যবসায়ীরা অনেকেই দাবি করেছেন বাম আমল থেকেই এই এলাকায় তোলা আদায় করতো শাজাহান বাহিনী কিন্তু তৃণমূল কংগ্রেস ক্ষমতায় আসার পর তোলা আদায়ের পরিমাণ অনেকটাই বেড়ে গিয়েছে। সেই সাথে সাধারণ মানুষের উপর অত্যাচার, মানুষ খুন এই সব বেড়ে গিয়েছে এলাকায়। আর এই সবের মূলে রয়েছে শাজাহানের লোকজন।

সুত্র : India Rag

আপনার মন্তব্য

Spread the love