অপরাধ

পুত্রবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ বিজেপি বিধায়কের বিরুদ্ধে

পুত্রবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ বিজেপি বিধায়কের বিরুদ্ধে

পুত্রবধূকে বন্দুক দেখিয়ে ধর্ষণ ও তার ভাইকে মেরে ফেলার হুমকির অভিযোগ প্রাক্তন বিজেপি বিধায়ক মনোজ শোকিনের বিরুদ্ধে। তিনি নাঙ্গলোই বিধানসভার দু’বারে বিজেপি বিধায়ক ছিলেন।

পৈশাচিক এই ঘটনা ঘটেছিল ২০১৮ সালের ৩১শে ডিসেম্বর মধ্যরাতের যখন বর্ষবরণের পার্টি সেরে শ্বশুরবাড়ি এসেছিলেন পুত্রবধূ সেই সময় স্বামীর রাতে বাড়ি না থাকার সুযোগকে কাজে লাগিয়ে প্রাক্তন বিজেপি বিধায়ক মনোজ পুত্রবধূর সঙ্গে এই কুকির্তী করে বলে পুলিশকে জানিয়েছে নির্যাতিতা।

নির্যাতিতার দেওয়া বয়ান অনুযায়ী বর্ষবরণের রাতে উনি(মনোজ শোকিন) সম্পূর্ণ মদ্যপ অবস্থাতেই ছিলেন। রাত প্রায় দেড়টা হবে। ঘরে একাই ঘুমোচ্ছিলেন তিনি। সেই সময়ই তাকে ঘরের দরজা খুলতে বলেন শ্বশুর। প্রথমে তার গায়ে অশালীন স্পর্শ করায় তার প্রতিবাদ করেন পুত্রবধূ। চিৎকার করবো বললে, মেয়েটিকে বন্দুক দেখিয়ে তার ভাইকে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হয়। তারপরই গায়ের জোরে তাকে ধর্ষণ করে হয়েছে বলে অভিযোগ নির্যাতিতা পুত্রবধূর।

প্রাক্তন বিজেপি বিধায়কের বিরুদ্ধে পুলিশে এফআইআর দায়ের করেছেন নির্যাতিতা গৃহবধূ। পুলিশ জানিয়েছে, আইপিসি-র ৩৭৬, ৫০৬ ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে। শুরু হয়েছে তদন্ত।

এফআইআর-য়ে পুলিশকে অভিযুক্ত বিধায়ক মনোজ শোকিনের পুত্রবধূ জানিয়েছেন, ২০১৮-এর ৩১ ডিসেম্বর রাতে বাপের বাড়ি থেকে স্বামী, ভাই ও আরও বেশ কয়েকজন আত্মীয়ের সঙ্গে শ্বশুরবাড়ি ফিরছিলেন তিনি। কিন্তু সেই সময় বাড়ি না গিয়ে স্বামী তাকে পশ্চিম বিহার অঞ্চলের একটি হোটেলে নিয়ে যায়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন আত্মীয়রা। পালন করা হয় বর্ষবরণ অনুষ্ঠান। রাত সাড়ে বারোটা নাগাদ স্বামী সহ বাড়ি ফিরে আসেন শোকিনের ছেলে ও পুত্রবধূ। এরপর বন্ধুদের সঙ্গে ফের বেরিয়ে যান বিধায়কের পুত্র। রাত দেড়টা নাগাদ ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন পুত্রবধু।

অভিযোগ, এই সময়ই কথা বলবেন বলে ঘর খুলতে পুত্রবধূকে জোর করেন অভিযুক্ত বিধায়ক মনোজ শোকিন।

পুলিশের ডেপুটি কমিশনার জানিয়েছেন, এই মামলায় তদন্ত এগোচ্ছে। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তথ্যসুত্র : এনডিটিভি

আরও পড়ুন ::

Back to top button