শিক্ষা

আবারও বেতন বৈষম্যের শিকার আইসিটি কম্পিউটার শিক্ষকরা

দীর্ঘদিন ধরে স্থায়ীকরণ ও বেতন বৃদ্ধির দাবিতে রাজ্যের প্রায় সাড়ে ছয় হাজার আইসিটি কম্পিউটার শিক্ষক-শিক্ষিকারা বিভিন্ন সময়, বিভিন্ন জায়গায় ও বিভিন্ন দপ্তরে আন্দোলন চালিয়ে গেছেন সেই চিত্র আমরা বারবারই দেখেছি। উৎসবের মরসুমে অর্থাৎ পুজোর মুখে আবারও তারা বৃহত্তর আন্দোলনের ডাক দিলেন তারা।

সম্প্রতি রাজ্য সরকার 14 ই অগাস্ট ২০১৯ একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে সরকারিভাবে ঘোষণা করেন যে- রাজ্যের সমস্ত আইসিটি কম্পিউটার শিক্ষক-শিক্ষিকাদের বেতন সাড়ে চার হাজার টাকা থেকে দশ হাজার টাকা করা হলো। কিন্তু আইসিটি কম্পিউটার শিক্ষক শিক্ষিকাদের অভিযোগ তারা – একমাসের বেশি পেরিয়ে গেলেও সেই বেতন হাতে পাননি। যদিও সরকারি বিজ্ঞপ্তিতে পরিষ্কার করে বলে দিয়েছিল যে 1লা আগস্ট 2019 থেকেই এই বর্ধিত বেতন লাগু হলো, কিন্তু অগাস্টের বেতন সেপ্টেম্বর মাসের 15 তারিখে আইসিটি শিক্ষক শিক্ষিকারা পেলেও দেখা যায় তাদের বেতন সেই পুরনো হারেই অর্থাৎ সাড়ে চার হাজার টাকাই আছে।

তাদের অভিযোগ তাদের এই বর্ধিত বেতন দিতে অস্বীকার করছেন il&fs(নতুন নাম- Schoolnet India Limited) সহ আরও দুটি অন্যান্য কোম্পানি(Access ও ExtraMarks) কোম্পানির কর্মকর্তাদের বক্তব্য- তারা সরকারিভাবে কোনো অর্ডার হাতে পাননি। অথচ রাজ্য সরকার সরকারিভাবে 14august বিজ্ঞপ্তি উনাদেরকে জানিয়ে দিয়েছেন বলে সরকারি মহলের খবর।

তাই এবার রাজ্যের আইসিটি কম্পিউটার শিক্ষক-শিক্ষিকারা রাজ্যের প্রত্যেকটি জেলায় জেলা স্কুল পরিদর্শক এর কাছে ডেপুটেশনের মাধ্যমে সমস্ত বিষয়টি তথা কোম্পানির এই বর্বোরোচিত অত্যাচারের বিরুদ্ধে সরব হলেন। এই উদ্দেশ্যে কাল হুগলি জেলার প্রায় শতাধিক আইসিটি কম্পিউটার শিক্ষক-শিক্ষিকারা হুগলি জেলার জেলা বিদ্যালয় পরিদর্শক মহাশয় এর কাছে একটি ডেপুটেশন জমা দিলেন।

সংগঠনের রাজ্য কমিটির সদস্যা সুতপা চক্রবর্তী জানান- তারা আজ হুগলী জেলার মাননীয় জেলা বিদ্যালয় পরিদর্শকের কাছে সমস্ত বিষয়টি তুলে ধরেন এবং মাননীয় জেলা বিদ্যালয় পরিদর্শক মহাশয়- পুজোর আগেই সমস্ত বিষয়টি খতিয়ে দেখার আশ্বাস দেন। সুতপা চক্রবর্তী এও বলেন যে- যদি পুজোর আগেই বর্ধিত বেতন (আগষ্ট মাসের বকেয়াসহ) ওনার হাতে না পান ,তাহলে আগামী দিনে ও অদূর ভবিষ্যতে কলকাতার রাজপথে আবারও তারা বৃহত্তর আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়বেন।

আরও পড়ুন ::

Back to top button