নির্ভয়ার 3 ধর্ষকের জেলে রোজগার 1.37 লক্ষ, কাজ করেনি মুকেশ

Advertisement

নির্ভয়া-কাণ্ডে প্রাণদণ্ডে দণ্ডিত মুকেশ সিং, অক্ষয় ঠাকুর, পবন গুপ্ত এবং বিনয় শর্মা সম্পর্কে একাধিক তথ্য সামনে এসেছে৷ তিহাড় জেল সূত্রে এ সব জানা গিয়েছে :

➡ গত 7 বছর জেলে বন্দি আছেন এই 4 জন৷

➡ বন্দি থাকা অবস্থায় বাকি 3জন তাঁদের জন্য নির্দিষ্ট কাজ করলেও, কোনও কাজ করেনি নির্ভয়া কাণ্ডে অন্যতম সাজাপ্রাপ্ত মুকেশ সিং।

➡ এই দীর্ঘ সময়ে বার বার নিয়মও ভেঙেছে এই 4 জন।

➡ বন্দি থাকাকালীন জেলকোড অনুসারে গত 7 বছর জেলের মধ্যে নির্দিষ্ট পরিশ্রম করতে হয়েছে নির্ভয়া-কাণ্ডের এই সাজাপ্রাপ্তদের৷

➡ জেলের মধ্যে নির্দিষ্ট পরিশ্রমের বিনিময়ে অক্ষয়, পবন এবং বিনয়, এই 3 জনের মোট আয় হয়েছে 1 লক্ষ 37 হাজার টাকা৷

➡ অক্ষয়ের একার রোজগার 69 হাজার টাকা৷

➡ পবন রোজগার করেছে 29 হাজার টাকা।

➡ বিনয় রোজগার করেছে 39 হাজার টাকা।

➡ একমাত্র মুকেশ সিং কোনও কাজ করতে একবারের জন্যও রাজি হয়নি।

➡ 2016 সালে ওই 4 জন নতুন করে পড়াশোনা শুরু করে।

➡ মুকেশ, পবন এবং অক্ষয় জেলের স্কুলে ক্লাশ টেন- এ ভর্তি হয়৷ অ্যানুয়াল পরীক্ষাতেও বসে।

➡ কিন্তু একজনও পাশ করতে পারেনি।


➡ 2015 সালে স্নাতকস্তরে ভর্তি হয় বিনয়। কিন্তু সে কোর্স শেষ করতে পারেনি৷

➡ গত 7 বছরে বার বার জেলের বিধিভঙ্গ করেছে এই 4 অপরাধী।

➡ মোট 11 বার জেলের নিয়ম ভেঙেছে বিনয়।

➡ পবন 8 বার নিয়ম ভেঙেছে।

➡ মুকেশ নিয়ম ভেঙেছে 3 বার৷

➡ 1 বার নিয়ম ভেঙেছে অক্ষয়-ও।

➡ নিয়ম ভাঙার অপরাধে তারা শাস্তিও পেয়েছে৷

➡ মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হওয়ার আগে মাত্র 2 বার বাড়ির লোকজনের সঙ্গে দেখা করার অনুমতি আছে 4 জনেরই।

➡ জেলের বিধি সবথেকে বেশিবার লঙ্ঘন করে শাস্তি পাওয়া বিনয়ের সঙ্গে দেখা করতে মঙ্গলবারই তিহাড়ে গিয়েছেন তার বাবা।

➡ দু’দিন আগে মুকেশের সঙ্গে তার মায়ের দেখা হয়েছে।

➡ মৃত্যু পরোয়ানা জারির পর পরিবারের কোনও সদস্যই আর পবনকে দেখতে আসেনি।

➡ নভেম্বরে অক্ষয়ের সঙ্গে জেলে দেখা করে যান স্ত্রী।

➡ পৃথিবীর বৃহত্তম জেল চত্বর তিহারে একাধিক জেল রয়েছে৷

➡ নতুন কোনও আইনি জটিলতা দেখা না দিলে তিহারের 3 নম্বর জেলে, এই 4 জনের ফাঁসি হওয়ার কথা৷

➡ গত রবিবার তিহারে ফাঁসির চূড়ান্ত মহড়াও হয়ে গিয়েছে।

➡ ফাঁসির নির্দেশ শেষ পর্যন্ত কার্যকর হলে ভারতে এই প্রথমবার একসঙ্গে 4 জনকে ফাঁসিতে ঝোলানো হবে।

➡4 জনকে ফাঁসিতে ঝোলাতে মেরঠ থেকে পবন জল্লাদকে তলব করা হয়েছে।

➡ আপাতত ঠিক হয়েছে, ফাঁসি পিছু 15 হাজার টাকা পাবেন পবন জল্লাদ। মোট পাবেন 60 হাজার টাকা৷


Recommended For You