করোনা নিয়ে সচেতনতায় কাশ্মীরে বাড়ানো হল মোবাইল ইন্টারনেট স্পিড


করোনা নিয়ে সচেতনতায় কাশ্মীরে বাড়ানো হল মোবাইল ইন্টারনেট স্পিড

রাজনৈতিক কারণে যা হয়নি, তাই হল এবার করোনা আতঙ্কে। মারণ ভাইরাসের জেরে নাগরিকদের সচেতনতা বাড়াতে মোবাইল ইন্টারনেট স্পিড বাড়ানো হল জম্মু ও কাশ্মীরে। দীর্ঘ ৭ মাস পর সম্প্রতি মোবাইল ইন্টারনেট চালু হয় নবগঠিত কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে। কিন্তু তা সীমাবদ্ধ ছিল 2G স্পিডেই। কিন্তু উপত্যকা ও লাদাখে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ায় মানুষকে সচেতন করতে পদক্ষেপ করল প্রশাসন। বাড়িয়ে দেওয়া হল মোবাইল ইন্টারনেট স্পিড। যাতে দ্রুত সবার মোবাইলে সচেতনতা বার্তা পৌঁছে দেওয়া যায়।

জানা গিয়েছে, শুক্রবার সন্ধে থেকে কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে মোবাইল ইন্টারনেট স্পিড ২৫৬ কেবিপিএস পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। তাও কাশ্মীরে 4G স্পিডের ইন্টারনেটের জন্য ক্ষোভ বাড়ছে। সম্প্রতি, মুক্তি পেয়েছেন ন্যাশনাল কনফারেন্সের সভাপতি তথা প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুখ আবদুল্লা। মুক্তি পেয়েই কাশ্মীরে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার জন্য কেন্দ্রের কাছে আবেদন করেন ফারুখ। তার মধ্যে মোবাইল ইন্টারনেট 4G স্পিড করার দাবি জানান তিনি। প্রশাসন সূত্রে খবর, করোনা পরিস্থিতি যুঝতেই মোবাইল ইন্টারনেট স্পিড বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।


উল্লেখ্য, লাদাখ থেকে করোনা সংক্রমণ এখন উপত্যকাতেও চলে এসেছে। গত বুধবার কাশ্মীরে প্রথম আক্রান্তের হদিশ মেলে। এরপরই তড়িঘড়ি নাগরিকদের সুবিধার্থে পদক্ষেপ করেছে প্রশাসন। জরুরি পরিষেবা-সহ মোবাইল ইন্টারনেটের স্পিডও বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। যা সাময়িক স্বস্তি দিয়েছে কাশ্মীরবাসীদের। ভারতে ক্রমশ জোরাল হচ্ছে করোনার দাপট। আরও ভয়াবহ হয়ে মানুষের শরীরে বাসা বাঁধছে জীবাণু। হু হু করে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে দেশে। গত দেড় দিনে ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধির এই হার চিন্তায় ফেলেছে বিশেষজ্ঞদের। পরিস্থিতি কিছুতেই বাগে আসছে না। সময়ের সঙ্গে সঙ্গ প্রকট হচ্ছে করোনা বিপর্যয়ের ছবিটা। করোনার বলি এখনও পর্যন্ত ৫। আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ২৭১। বাইরে থেকে আসা বিদেশিদের থেকেই মূলত সংক্রমণ ছড়াচ্ছে বলে দেখা গিয়েছে বিভিন্ন রাজ্যে।

সুত্র : সংবাদ প্রতিদিন

আপনার মন্তব্য

Recommended For You