গাছের ডালে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে ৭ শ্রমিক


গাছের ডালে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে ৭ শ্রমিক

 

বাড়িতে আলাদা ঘর না থাকায় কোয়ারেন্টিনে থাকতে গাছে আশ্রয় নিয়েছেন ভারতের পুরুলিয়া জেলার সাত শ্রমিক। করোনা সংক্রমণ এড়াতে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে তারা গাছে আশ্রয় নিয়েছেন বলে সংবাদ প্রকাশ করেছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

জানা গেছে, ওই সাত শ্রমিক চেন্নাইতে কাজ করতেন। বাড়ি ফেরার আগে চিকিৎসকের কাছে গিয়েছিলেন তারা। এ সময় চিকিৎসক তাদের ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকার পরামর্শ দেন। কিন্তু ওই শ্রমিকদের কারও বাড়িতেই অতিরিক্ত ঘর না থাকায় গাছে আশ্রয় নেন তারা।


শ্রমিকদের একজন বিজয় সিংহ লায়া বলেন, ‘আমরা চেন্নাই থেকে এসেছি‌লাম। গাড়িতে করে বহরমপুর হয়ে এসেছি। আমরা সুস্থই আছি। কিন্তু চিকিৎসকরা বলে দিয়েছেন আগামী ১৪ দিন নিজেদের বাড়িতে কোয়ারেন্টিনে থাকতে এবং সকলের সঙ্গে দূরত্ব বজায় রাখতে। কিন্তু আমাদের বাড়িতে এমন কোনো আলাদা ঘর নেই। তাই আমরা আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নিলাম এখানে থাকার।’

তিনি আরও বলেন, ‘এখন আমরা আমাদের মতো আছি। সমস্ত নিয়ম মেনেই থাকব। সকালে আমাদের খাবার দিয়ে যাওয়া হচ্ছে। দুপুর ও রাতেও ভাত দিয়ে যাচ্ছে। জলের অভাব নেই। এখানে আমাদের কাছে স্টোভ রয়েছে, যাতে জল ফুটিয়ে খেতে পারি বা প্রয়োজনে রান্নাও করে ন‌িতে পারি।’

আপাতত গাছেই বসবাস করছেন ওই সাত শ্রমিক। গাছের ডালের সঙ্গে কাপড় বেঁধে তৈরি করেছেন আস্তানা। করোনা সংক্রমণ এড়াতে এখানেই আগামী ১৪ দিন থাকবেন তারা।

সুত্র: আমাদের সময়

আপনার মন্তব্য

Recommended For You