ঝাড়গ্রাম

পেশায় চিকিৎসক, নেশায় বাঞ্ছারাম

পেশায় চিকিৎসক, নেশায় বাঞ্ছারাম

স্বপ্নীল মজুমদার, ঝাড়গ্রাম: পেশায় চিকিৎসক। নেশায় বাঞ্ছারাম! ছাদের বাগানে প্রাণের আরাম কৌশিক মাহাতোর। ঝাড়গ্রাম শহরের রঘুনাথপুরের দেবেন্দ্রমোহন ভট্টাচার্য সরণির বাসিন্দা তরুণ চিকিৎসক কৌশিকের ভালোবাসা তাঁর ছাদের সাড়ে বারোশো বর্গফুটের বাগান।

এখন লকডাউনে বাড়ির বাগানে বেশি সময় দিচ্ছেন তিনি। মনও ভাল থাকছে। সময় কীভাবে কেটে যাচ্ছে বুঝতেই পারছেন না। পুষ্প ও অর্কিড বিশেষজ্ঞ হয়ে উঠেছেন কৌশিক। অনেকেই তাঁর কাছে পরামর্শ নিতে আসেন। জেলা ও রাজ্য স্তরের বহু পুষ্প প্রদর্শনীতে কৌশিক অসংখ্যবার পুরস্কৃত হয়েছেন। কৌশিকের পরিশ্রমে ফুল, অর্কিড, বনসাইয়ে ঘেরা ঝাড়গ্রামের অন্যতম দ্রষ্টব্য হয়ে উঠেছে ‘ডাক্তারের বাগান’।

ঝাড়খণ্ডের সিংভূম হোমিওপ্যাথি মেডিক্যাল কলেজ থেকে ‘ব্যাচেলর অফ হোমিওপ্যাথিক মেডিসিন অ্যাণ্ড সার্জারি’ (বিএইচএমএস) ডিগ্রিপ্রাপ্ত কৌশিক ঝাড়গ্রাম জেলা অনগ্রসর শ্রেণিকল্যাণ দফতরের মেডিক্যাল অফিসার। মূলত লোধা-শবর অধ্যুষিত গ্রামের সরকারি চিকিৎসাকেন্দ্রে গিয়ে তাঁদের চিকিৎসা ও স্বাস্থ্য সচেতনতার কাজ করেন তিনি। এ ছাড়া শহরে নিজস্ব চেম্বারে প্রাইভেট প্র্যাকটিস তো আছেই। এখন অবশ্য দিনের প্রায় সিংহভাগ সময়টা বরাদ্দ থাকছে ছাদের বাগানের জন্য।

মন্তব্য করুন ..

আরও পড়ুন ::

Back to top button