রাজনীতি

দেড়গুণ চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে র‍্যাপিড টেস্ট কিট! দুর্নীতির অভিযোগে রাহুলের

 

করোনার র‍্যাপিড টেস্ট কিট বিক্রিতেও হচ্ছে দুর্নীতি! চিন থেকে আসা কিট ICMR -কে কিনতে হচ্ছে ১৪৫ শতাংশ বেশি দাম দিয়ে। সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত এই খবরকে হাতিয়ার করে এবার অসাধু ব্যাবসায়ীদের কাঠগড়ায় তুললেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi)। তাঁর কথায়, মানব সভ্যতার এই কঠিন সময়েও কেউ অসত্‍ উপায়ে মুনাফা লোটার চেষ্টা করছে, এটা অকল্পনীয়। প্রধানমন্ত্রীর কাছে এই অসাধু ব্যাবসায়ীদের শাস্তির দাবিও জানিয়েছেন কংগ্রেস সাংসদ।

একটি সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমের দাবি অনুযায়ী, ভারতে চিনা র‍্যাপিড টেস্ট কিটের একমাত্র সরবরাহকারী সংস্থা আসল দামের প্রায় দেড়গুণ চড়া দামে কিটগুলি ICMR-কে বিক্রি করছে। চিন থেকে যে টেস্ট কিট আমদানি হচ্ছে ২৪৫ টাকা দামে, সেগুলি ভারতে বিক্রি হচ্ছে ৬০০ টাকায়। দুর্নীতির অভিযোগে সরবরাহকারী সংস্থাটির বিরুদ্ধে আরেকটি সংস্থা দিল্লি হাই কোর্টে মামলাও করে।

সেই মামলার ভিত্তিতে দিল্লি হাই কোর্ট র‍্যাপিড টেস্ট কিটের দাম বেঁধে দিয়েছে। ৪০০ টাকার বেশি দামে এই কিট বিক্রি করা যাবে না। রাহুল গান্ধী এবার এই সংস্থাটির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানাচ্ছেন।

সোমবার এক টুইটে কংগ্রেস নেতা বলেন, ‘যখন গোটা দেশ মহামারির বিরুদ্ধে লড়ছে, তখনও গোটা এই লোকগুলো মুনাফা কামাতে ভুল করে না। এই দুর্নীতিগ্রস্ত মানসিকতার জন্য আমরা লজ্জিত। এদের দেখলে ঘৃণা হয়। আমার প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন, এই মুনাফাখোরদের বিরুদ্ধে দ্রুত পদক্ষেপ করা হোক। দেশ কোনওদিন এদের ক্ষমা করবে না।’

তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্রও (Mahua Moitra) সরব হয়েছেন এই ইস্যুতে। তাঁর আবার সরাসরি অভিযোগ মোদি-শাহের দিকে। তৃণমূল সাংসদ বলছেন, ‘গুজরাটি ব্যবসার বুদ্ধিতেই ২৪৫ টাকার কিট ৬০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। তারপর রাজ্যগুলিকে দোষ দেওয়া হচ্ছে পরীক্ষা না করানোর জন্য। মোদি-শাহের বুদ্ধি প্রশংসার দাবি রাখে।’

সুত্র:সংবাদ প্রতিদিন

আরও পড়ুন ::

Back to top button