বিচিত্রতা

সমুদ্রের উপর জলে নয় হাওয়ায় ভাসছে আস্ত জাহাজ, অদ্ভুত দৃশ্যে তোলপাড় নেট দুনিয়া


সমুদ্রের উপর জলে নয় হাওয়ায় ভাসছে আস্ত জাহাজ, অদ্ভুত দৃশ্যে তোলপাড় নেট দুনিয়া

বিশ্ব জুড়ে মহামারীর জেরে এমনিতেই আতঙ্কের শেষ নেই। তার মধ্যে এক অদ্ভুতুড়ে ছবিতে তোলপাড় বিশ্ব। সমুদ্রের উপর জলে নয়, হাওয়ায় ভাসছে আস্ত জাহাজ।

নিউ জিল্যান্ডের মাউন্ট মাউনগানুই সমুদ্র সৈকত থেকে তোলা হয়েছে ছবি ও ভিডিও। আর তাতে দেখা যাচ্ছে, সমুদ্রের উপর মহাশূন্যে ভাসছে ওই জাহাজ। মনিকা শ্যাফনার এক এক মহিলা ভিডিওটি তুলে পোস্ট করেন। আর সেই ভিডিও হু হু করে ছড়িয়ে পড়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ফেসবুকে পোস্ট করে ওই মহিলা লিখেছেন, ‘আমি এই দৃশ্য দেখেছি, যেখানে জাহাজটা মহাশূন্যে ভাসছিল বলে মনে হচ্ছিল।’ এর বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা হল, ‘অপটিক্যাল ইলিউশন’ বা দৃষ্টিভ্রম।

সমুদ্রের উপর জলে নয় হাওয়ায় ভাসছে আস্ত জাহাজ, অদ্ভুত দৃশ্যে তোলপাড় নেট দুনিয়া

আসলে পরিবেশের বিশেষ পরিবর্তনের জন্য মানুষের চোখে দূরত্ব ও দূরে থাকা কোনও বস্তু দেখার ক্ষেত্রে তারতম্য হয়। ফলে সাধারণ অবস্থায় খালি চোখে যেটা যেরকম দেখানোর কথা, সেটা সেরকম নাও দেখাতে পারে।

এই ধরনের ইলিউশনকে বলা হয় ‘ফ্যাটা মরগানা।’ ফ্যাটা অর্থাৎ ‘কাল্পনিক।’ আর মরগানা অর্থাৎ যাদুকরী। এই ফ্যাটা মরগানার জন্য অনেক সময় জাহাজ ডুবে পর্যন্ত যেতে পারে। ২০১২ তে ব্রিটিশ ইতিহাসবিদ টিম মালটিন বলেছিলেন, টাইটানিক নাকি এই কারণেই ডুবে গিয়েছিল।

সূর্য যখন দিগন্ত রেখায় অস্ত যায়, তখনও এমন দৃশ্য দেখা যেতে পারে। শুধুমাত্র কোনও দৃশ্যমান জিনিস অদৃশ্য হয়ে যেতে পারে, তাই নয়, সেটি আসলের থেকে বড় বা ছোট আকারের দেখা যেতে পারে, আসল অবস্থানের তুলনায় উপরে বা নীচে দেখাতে পারে।

এক্ষেত্রেও তেমনটাই হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

সূত্র – কলকাতা ২৪x৭

আরও পড়ুন ::

Back to top button