জীবন যাত্রা

সোমবার থেকে একাধিক রাজ্যে খুলছে মদের দোকান, জেনে নিন খুঁটিনাটি ………..

 

মার্চের শেষ সপ্তাহে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দেশজুড়ে লকডাউন ঘোষণা করেছিলেন। করোনা মোকাবিলায় সেই লকডাউন বাড়াতে হয়েছে দু’বার। আর লকডাউনের মধ্যে মদের দোকান বন্ধই রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল কেন্দ্র। ফলে সুরাপিপাসুদের মুখ ছিল ভার। তেষ্টায় গলা ফাটলেও কষ্ট বুকে চেপেই ঘুমিয়েছেন তাঁরা। তবে সোমবার থেকে ছবিটা অনেকাংশে বদলাতে চলেছে। কারণ শর্তসাপেক্ষে মদের দোকান খোলার অনুমতি দিয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। কোন কোন রাজ্য ইতিমধ্যেই মদের দোকান খোলার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছে? কী শর্তই বা মেনে চলতে হবে? চলুন জেনে নেওয়া যাক।

প্রথমেই আসা যাক রাজধানী দিল্লি র কথায়। কনটেনমেন্ট জোন বাদ দিয়ে সোমবার দিল্লিতে খুলছে সাড়ে ৪০০টি মদের দোকান। সবগুলিই স্ট্যান্ড অ্যালোন ও সরকারের খাতায় নথিভুক্ত দোকান। অর্থাত্‍ শপিং মল বা সুপারমার্কেটের মধ্যে নয়। ২২ মার্চ থেকে বন্ধ থাকার পর সোমবারই শাটার উঠবে এই দোকানগুলিতে। ফলে সুরাপ্রেমীদের ভিড় যে উপচে পড়বে, তা আন্দাজ করাই যায়।

আর সেই কারণেই কেন্দ্রের নির্দেশিকা মেনে চলা জরুরি। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। মানতে হবে স্বাস্থ্যবিধিও। দিল্লির আবগারী দপ্তর জানাচ্ছে, শপিং মল, বাজারের দোকান মিলিয়ে ৫৪৫টি মদের দোকান রয়েছে রাজধানীতে। অর্থাত্‍ সোমবার থেকে অধিকাংশ মদের দোকানই খুলবে, তা উপরের সংখ্যা থেকেই স্পষ্ট।

মহারাষ্ট্র সরকারের তরফে আবার জানানো হয়েছে, ৪ মে অর্থাত্‍ সোমবার থেকে রেড জোনেও খোলা থাকবে মদের দোকান। তবে সংক্রমক এলাকায় কোনও দোকান খোলার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না। প্রত্যেক লেনে পাঁচটি অনাবশ্যক দোকান খুলতে পারে। তবে অত্যাবশ্যক দোকানের ক্ষেত্রে এমন কোনও বাধানিষেধ থাকবে না। এই দুই রাজ্যের পাশাপাশি কর্ণাটক, অসম ও গোয়া সরকারও মদ কেনা-বেচার অনুমতি দিয়েছে।

তবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের নির্দেশিকা মেনে সংক্রমক এলাকা বাদ দিয়ে স্যান্ড অ্যালোন মদের দোকানগুলিই সোমবার থেকে খোলা হবে। কর্ণাটকের আবগারী মন্ত্রী এইচ নাগেশ বলেন, ‘রেড, অরেঞ্জ ও গ্রিন- সব এলাকাতেই মদের দোকান খোলার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। শুধু শপিং মল আর জনবহুল এলাকায় ও সংক্রমক এলাকায় খোলা যাবে না।’

এবার প্রশ্ন হল, বাংলার সুরাপ্রেমীরাও কি সোমবার থেকে মদ কিনতে পারবেন? না, সে বিষয়ে এখনও পর্যন্ত কিছু ঘোষণা করা হয়নি। তবে এ নিয়ে সোমবারই রাজ্য সরকারের সিদ্ধান্ত ঘোষিত হতে পারে।

সুত্র: সংবাদ প্রতিদিন

আরও পড়ুন ::

Back to top button