রাজ্য

কালই দু’টি ট্রেনে করে ভিনরাজ্য থেকে ২৫০০ মানুষকে ফেরাচ্ছে রাজ্য !

 

কেন্দ্রীয় সরকারের নির্দেশের পরেই বিভিন্ন রাজ্য থেকে অভিবাসী শ্রমিকদের নিজেদের রাজ্যে ফেরানোর কাজ শুরু হয়েছে। বাংলাতেও ফিরতে চলেছেন শ্রমিকরা। জানা গেছে, আগামীকাল, সোমবার রাজস্থান থেকে ১২০০ জন বাঙালি শ্রমিক নিয়ে বাংলার উদ্দেশে রওনা দেবে বিশেষ ট্রেন।

এর পরেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় টুইট করে জানিয়েছেন, আরও ১৩০০ শ্রমিক নিয়ে আরও একটি বিশেষ ট্রেন কেরালা থেকে ছাড়বে পশ্চিমবঙ্গের উদ্দেশে। প্রতিশ্রুতি মতোই দু’টি ট্রেন মিলিয়ে প্রায় আড়াই হাজার অভিবাসী শ্রমিক বাংলায় ফিরবেন বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

মার্চ মাসের শেষ দিক থেকে লকডাউন শুরু হওয়ার পরে সারা দেশজুড়েই এই অভিবাসী শ্রমিকদের নিয়ে বড় সমস্যা শুরু হয়। অনেকেই অনেকটা পথ কষ্ট করে হেঁটে ফিরে আসেন নিজের রাজ্যে, কেউ আবার লুকিয়ে ফিরতে গিয়ে ধরা পড়েন। কিন্তু চরম দুর্ভাগ্যজনক ভাবে পথেই মারা যান বহু শ্রমিক। এই অবস্থায় সমস্ত রাজ্যের তরফেই কেন্দ্রে কাছে অনুরোধ করা হয়, শ্রমিক ও অন্যান্য কর্মীদের নিজের রাজ্যে ফেরাতে যাতে বিশেষ ট্রেনের ব্যবস্থা করা হয় সরকারের তরফে।

সেই অনুরোধে সাড়া দিয়েই শুরু হয়েছে শ্রমিকদের ফেরানোর রেলযাত্রা। রবিবার সন্ধেবেলা বাংলার রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ও জানান, তিনি কথা বলেছেন রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েলের সঙ্গে। সোমবার ভোরেই রাজস্থানের আজমের থেকে একটি ট্রেন ছাড়বে শ্রমিকদের নিয়ে। দুর্গাপুরে এসে পৌঁছবে ট্রেনটি, তার পরে যাত্রা শেষ করবে ডানকুনিতে। রাজস্থান সরকারের উদ্যোগেই ট্রেনযাত্রার সমস্ত আয়োজন করা হয়েছে। ট্রেনটি রাজ্যে পৌঁছবে দু’দিন পরে, মঙ্গলবার।

রেল মন্ত্রক সূত্রের খবর, শ্রমিকদের ফেরানোর জন্য ট্রেন চালালেও, সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার নিয়ম পুরোপুরি পালন করা হচ্ছে। ৭২ জন চড়তে পারেন এরকম স্লিপার কোচে ৫০ জনের বেশি নেওয়া হচ্ছে না। নিয়ম মেনে স্যানিটাইজ় করা হচ্ছে গোটা ট্রেনও। এই ট্রেনগুলি শ্রমিকদের জন্য বিশেষ করে চালানো হলেও, তীর্থযাত্রী, পড়ুয়া ও রোগীরাও ফিরছেন দুই রাজ্য থেকেই। ফেরার পরে সকলেরই নিয়ম মেনে পরীক্ষা করা হবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

সুত্র: THE WALL

আরও পড়ুন ::

Back to top button