রাজনীতি

‘‌অভিযোগ প্রমাণ করুন, নয়ত ক্ষমা চান’, অমিত শাহকে কড়া জবাব চাইল অভিষেক !

'‌অভিযোগ প্রমাণ করুন, নয়ত ক্ষমা চান', অমিত শাহকে কড়া জবাব চাইল অভিষেক !

 

ওয়েবডেস্ক:‌ অভিযোগ প্রমাণ করুন, নয়তো ক্ষমা চান। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে পাল্টা জবাব দিলেন তৃণমূল সাংসদ অভিষেক ব্যানার্জি। সংবাদ সংস্থা পিটিআই সূত্রে খবর, অমিত শাহের অভিযোগ, ‘‌পশ্চিমবঙ্গের শ্রমিকরা বাড়ি ফিরতে চান। কেন্দ্রীয় সরকার তাঁদের সাহায্য করছে। কিন্তু আমরা পশ্চিমবঙ্গ সরকারের কাছ থেকে প্রত্যাশিত সাহায্য পাচ্ছি না।

এর ফলে পরিযায়ী শ্রমিকদের প্রতি অবিচার করা হচ্ছে। এতে তাঁদের সমস্যা বাড়ছে।’ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর এই অভিযোগের পরেই টুইটারে অভিষেক ব্যানার্জি লেখেন, ‘এই সঙ্কটের সময় নিজের দায়িত্ব পালন করতে ব্যর্থ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। কয়েক সপ্তাহ নীরব থাকার পর তিনি একগুচ্ছ মিথ্যা বলে মানুষকে ভুল বোঝানোর জন্যই মুখ খুললেন। তিনি যাঁদের কথা বলছেন, তাঁর সরকারের জন্যই এই মানুষজন সমস্যায় পড়েছেন। অমিত শাহ, হয় আপনার ভুয়ো অভিযোগের প্রমাণ দিন, না হলে ক্ষমা চান।’

প্রসঙ্গত, ভিন রাজ্য থেকে ট্রেনে চড়ে বাড়ি ফিরছেন বাংলার শ্রমিকরা। এ জন্যে বরাদ্দ করা হয়েছে মোট ১০টি ট্রেন। জানিয়েছেন রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন ব্যানার্জি। ১০ মে কর্নাটক থেকে রাজ্যে আসছে তিনটি ট্রেন। এছাড়া এই দফায় ফিরছেন বাঁকুড়া, ঝারগ্রাম, কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার, জলপাইগুড়ি, কালিম্পং, দার্জিলিং, পুরুলিয়া, বীরভূম এবং পশ্চিম বর্ধমানের শ্রমিকরা। ১০ মে তেলঙ্গানা থেকে ফিরছেন মালদার ইংরেজ বাজারের শ্রমিকরা।

১১ মে পাঞ্জাব থেকে ফিরছেন হুগলি ও নদিয়ার শ্রমিকরা। ১২ মে পাঞ্জাব থেকে ফিরছেন বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, বীরভূম এবং পশ্চিম বর্ধমানের শ্রমিকরা। ওইদিন তামিলনাড়ু ভেলোর থেকে দু’‌টি ট্রেনে ফিরছেন এরাজ্যের বাসিন্দারা। এই দফায় ফিরছেন কলকাতা, দুই ২৪ পরগনা, নদিয়া, হাওড়া, পূর্ব ও পশ্চিম বর্ধমান, হুগলি এবং পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, হুগলি এবং পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুরের বাসিন্দারা।

সূত্রের খবর, প্রত্যেকটি ট্রেনই মোটামুটি ১২০০-র কাছাকাছি শ্রমিক নিয়ে এরাজ্যে ফিরবে। আগামীদিনে ট্রেনের সংখ্যা আরও বাড়ানো হতে পারে বলে খবর সরকারি সূত্রে। পাশাপাশি ছোট গাড়ির চলাচলের জন্য ৬০০০টি পাসের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে রাজ্যের তরফে। সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে জানিয়েছেন রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিব।

সুত্র: আজকাল.in

আরও পড়ুন ::

Back to top button