ঝাড়গ্রাম

সমাজসেবী-শিক্ষক কৌশিক মাহাতোর আবক্ষ মূর্তি বসল ঝাড়গ্রামের জোড়াখালি গ্রামে

স্বপ্নীল মজুমদার, ঝাড়গ্রাম: তিন বছর আগে মোটর বাইক দুর্ঘটনায় ঝাড়গ্রামের সমাজসেবী কৌশিক মাহাতোর মৃত্যু হয়েছিল। রবিবার কৌশিকবাবুর তৃতীয় প্রয়াণ দিবসে তাঁরই আবক্ষ মূর্তি বসল ঝাড়গ্রামের জোড়াখালি গ্রামে। উদ্যোক্তা জোড়াখালি পল্লীশ্রী সঙ্ঘ। এদিন মূর্তিটির আবরণ উন্মোচন করেন ঝাড়গ্রাম রাজ কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ড. দেবনারায়ণ রায়।

ছিলেন মহাপাল শ্রীবিদ্যাপীঠ উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধানশিক্ষক প্রভাতকুমার রাউৎ, ওই স্কুলের তিন সহশিক্ষক পার্থ বন্দ্যোপাধ্যায়, কার্তিক সাউ, জয় বিশ্বাস, কুড়মি-ক্ষত্রিয় মহাসঙ্ঘের জন্মেঞ্জয় মাহাতো প্রমুখ। জোড়াখালি গ্রামের বাসিন্দা কৌশিকবাবু ছিলেন মহাপাল শ্রীবিদ্যাপীঠ বিদ্যালয়ের জীবনবিজ্ঞানের শিক্ষক।

একজন দরদী শিক্ষকের পাশাপাশি, সমাজসেবীও ছিলেন তিনি। ২০১৭ সালের ৭ জুন ঝাড়গ্রাম শহরে মোটর বাইক দুর্ঘটনায় তাঁর মৃত্যু হয়। কৌশিকবাবুর মৃত্যুর পরে তাঁর স্মৃতিতে মহাপাল স্কুল কর্তৃপক্ষকে এবং জোড়াখালির ক্লাবটিকে লক্ষাধিক টাকা দান করেন কৌশিকবাবুর বাবা শঙ্কর মাহাতো। ওই টাকায় স্কুলের কৃতী ছাত্রছাত্রীদের পুরস্কৃত করা হচ্ছে। এবং ক্লাবের উদ্যোগে প্রতি বছর দরিদ্রদের জন্য বিনামূল্যে স্বাস্থ্যশিবির হবে। কৌশিকবাবুর মা কল্যাণী মাহাতো পুত্রশোকে অসুস্থ হয়ে গত বছর প্রয়াত হন। এদিন মূর্তি প্রতিষ্ঠার পরে এলাকাটির নতুন নাম হয়েছে ‘কৌশিক-চক’।

আরও পড়ুন ::

Back to top button