খেলা

VIVO-এর সাথে চুক্তি বাতিল না করলে সৌরভের বিরুদ্ধে মামলা হবে দেশদ্রোহের !

VIVO-এর সাথে চুক্তি বাতিল না করলে সৌরভের বিরুদ্ধে মামলা হবে দেশদ্রোহের !

 

ওয়েবডেস্ক :: মুম্বই, লাদাখে ভারত ও চিনের মধ্যেকার সংঘর্ষের ঘটনার পর ভারতবাসীরা চিনা দ্রব্য বর্জনের ডাক দিয়েছে। ইতিমধ্যেই দেশের বিভিন্ন জায়গায় চিনা দ্রব্য বর্জনের কর্মসূচিও পালন করা হয়েছে। এরই মধ্যে প্রশ্ন উঠেছিল ক্রিকেটের জনপ্রিয় লিগ আইপিএল-এর স্পনসরশিপ VIVO-এর সঙ্গে

চুক্তি বাতিল করার। এ বিষয়ে বিসিসিআইয়ের কোষাধ্যক্ষ অরুণ ধুমাল বলেছিলেন যে, “বিসিসিআই একটি প্রতিষ্ঠান হিসেবে দেশকেই সবসময় এগিয়ে রাখে। কিন্তু স্পনসরের ক্ষেত্রে সমস্ত অর্থই আইপিএল এর স্পনসরশিপ হিসেবে ভারতেই প্রবেশ করে।”

এ বিষয়ে জন-অধিকার পার্টির জাতীয় সভাপতি এবং প্রাক্তন সাংসদ পাপ্পু যাদব ক্রিকেট বোর্ডের এই পদক্ষেপকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করেছেন। তিনি

ট্যুইট করে লেখেন, “বিসিসিআই অমিত শাহ-অনুরাগ ঠাকুর গ্যাং-এর দখলে রয়েছে। VIVO-এর সাথে চুক্তি বাতিল না হলে জয় শাহ, অরুণ ধুমাল, সৌরভ গাঙ্গুলির বিরুদ্ধে আমি দেশদ্রোহীতার মামলা করব!”


তিনি আরও লেখেন, “বিসিসিআইয়ের কোষাধ্যক্ষ অরুণ ধুমাল বলেছিলেন যে চিনা সংস্থাটি দেশের উপকার করবে, আইপিএলে VIVO-এর সাথে চুক্তি ভঙ্গ করবে না।

অরুণ ধুমালের ভাই, অর্থ প্রতিমন্ত্রী অনুরাগ ঠাকুর দয়া করে একই স্লোগানের পুনরাবৃত্তি করবেন না। ‘দেশের বিশ্বাসঘাতকদের গুলি করুন’ …।” দেশজুড়ে যখন চিনা দ্রব্য বর্জনের ডাক উঠেছে, তখন বিসিসিআই চিনা কোম্পানির স্পনসরশিপ ছাড়তে নারাজ।

চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়া অবধি VIVO-ই থাকছে আইপিএল এর টাইটেল স্পনসর, এমনটা স্পষ্ট করে দেন বিসিসিআই কোষাধ্যক্ষ। তবে তিনি এও আশ্বস্ত করেন, আগামী দিনে কোনও চিনা কোম্পানিকে স্পনসরশিপ দেওয়া হবে না।

বিসিসিআই VIVO-এর কাছ থেকে বার্ষিক ৪৪০ কোটি টাকা লাভ করে। পাঁচ বছরের চুক্তিটি ২০২২ সালে শেষ হবে।

সুত্র: কলকাতা Times 24

মন্তব্য করুন ..

আরও পড়ুন ::

Back to top button