রাজ্য

এবার বাংলায় ত্রাণ নিয়ে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে নেপোটিজমের অভিযোগ রাজ্যপালের !

 

ওয়েবডেস্ক : এবার রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধেও নেপোটিজমের অভিযোগে সরব হলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। ঘূর্ণিঝড় আমফান বিধ্বস্ত এলাকাগুলিতে ত্রাণ বণ্টন নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বেনজির আক্রমণ রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের। রাজ্যে ত্রাণ বণ্টনে নেপটিজম চালাচ্ছে সরকার, এমনই অভিযোগ ধনখড়ের।

ঘূর্ণিঝড় আমফানে লণ্ডভণ্ড দশা হয় রাজ্যের একাধিক এলাকার। বিশেষত উপকূলবর্তী জেলাগুলির অবস্থা সবচেয়ে খারাপ হয়। এরপরই ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রাণ বিলির উদ্যোগ নেয় রাজ্য সরকার।

তবে শুরু থেকেই সেই ত্রাণ বণ্টনে স্বজনপোষণের অভিযোগে সরব হয় রাজ্যের একাধিক বিরোধী রাজনৈতিক দল। বাম, কংগ্রেস থেকে শুরু করে বিজেপি নেতারা শাসকদল তৃণমূলের বিরুদ্ধে স্বজনপোষণের অভিযোগ তুলে সরব হন।

একাধিক এলাকায় ত্রাণ নিয়ে দলবাজির অভিযোগ ওঠে। ক্ষতিগ্রস্তরা স্থানীয় পঞ্চায়েত ও বিডি অফিস ঘিরে বিক্ষোভও দেখান। জেলায়-জেলায় ক্ষোভের পারদ চড়তে থাকে। রাজ্যপাল এর আগেও ত্রাণ বণ্টন নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছিলেন। শুক্রবার আবারও আরও একধাপ চড়িয়ে রাজ্যকে কাঠগড়ায় তুললেন তিনি। একইসঙ্গে একহাত নিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও।

আমফানে ত্রাণ বণ্টনে দুর্নীতি হচ্ছে বলে অভিযোগ রাজ্যপালের। টুইটে তিনি লেখেন, ‘আমফানে ত্রাণ বিলি নিয়ে রাজ্য সরকার নির্লজ্জের মতো দুর্নীতি চালাচ্ছে। শাসকদলের নেতা ঘনিষ্ঠরা ত্রাণ পাচ্ছেন। প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তরা বঞ্চিত হচ্ছেন। ত্রাণ বিলিতে নেপোটিজম বা স্বজনপোষণ চলছে রাজ্যে।’

এরই পাশাপাশি রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা রক্ষার ইস্যুতেও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কড়া সমালোচনা করেছেন রাজ্যপাল।

তৃণমূল নেতৃত্বাধীন রাজ্য সরকারের আমলে আইনশৃঙ্খলার পরিস্থিতি পুরোপুরি ভেঙে পড়েছে বলে অভিযোগ রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের। টুইটে তিনি লেখেন, ‘রাজ্যে জরুরি অবস্থা চালাচ্ছেন মমতা। পুলিশ, প্রশাসনকে দলের স্বার্থে ব্যবহার করা হচ্ছে। বেশ কিছু পঞ্চায়েত শাসকদলের হয়ে কাজ করছে।

সুত্র: কলকাতা24×7

আরও পড়ুন ::

Back to top button