আন্তর্জাতিক

যুক্তরাষ্ট্রে বেশিরভাগ ভাইরাস পরীক্ষা ‘স্রেফ অপচয়’

যুক্তরাষ্ট্রে বেশিরভাগ ভাইরাস পরীক্ষা ‘স্রেফ অপচয়’

যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাস পরীক্ষার সমালোচনা করে মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস বলেছেন, বেশিরভাগ পরীক্ষাই ‘স্রেফ অপচয়’। কারণ, এই পরীক্ষাগুলোর ফল আসতে অনেক দেরি হয়।

এক সাক্ষাৎকারে বিল গেটস একথা বলেছেন বলে জানিয়েছে।

তিনি মনে করেন, মানুষের করোনাভাইরাস পরীক্ষার ফল দ্রুতই পাওয়া উচিত, যাতে ভাইরাস শনাক্ত হলে তারা অন্যদেরকে সংক্রমিত করার ঝুঁকি এড়াতে সতর্কতামূলক পদক্ষেপ নিতে পারেন।

বিল গেটস বলেন, “সোজা কথা হল, একটা পরীক্ষার ফল ৪৮ ঘণ্টারও বেশি সময় পর পাওয়ার জন্য কাউকে টাকাপয়সা দেওয়ার কোনও মানে হয় না। এভাবে পরীক্ষা করানোটা একেবারে অপচয় ছাড়া আর কিছু না। আমরা যেসব পরীক্ষা করছি এগুলোর বেশিরভাগই আসলে অপচয়।”

[ আরও পড়ুন : আফগানিস্তানে গাড়িবোমা হামলায় অন্তত ১৭ জন নিহত ]

পরীক্ষার ফল পেতে অর্থ খরচ করাটা ‘পাগলামি’ আখ্যা দিয়ে তিনি বলেছেন, এই ফল পেতে তিন দিনের বেশি এমনকি পুরো একটি সপ্তাহ লেগে যেতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাস সংক্রমণের শুরুতে দেশব্যাপী পরীক্ষা চালু করায় ধীরগতি দেখা গিয়েছিল। আর পরীক্ষার ফল পেতে দেরি হওয়ার কারণে দেশে ভাইরাসের বিস্তার নিয়ন্ত্রণে আনার কাজ ব্যাহত হয়েছে, বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

করোনাভাইরাস পরীক্ষা নিয়ে বিল গেটসের সঙ্গে একমত পোষণ করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের ‘ডিপার্টমেন্ট অব হেলথ অ্যান্ড হিউম্যান সার্ভিসেস’ এর সহকারী মন্ত্রী ব্রেট।

তার মতে, পরীক্ষা ব্যবস্থা আরও ভাল হওয়া দরকার। “২৪ ঘণ্টার মধ্যে পরীক্ষার ফল দিতে না পারা পর্যন্ত আমরা কখনও সন্তুষ্ট হতে পারি না,” বলেন ব্রেট।

[ আরও পড়ুন : বিশ্বে প্রথম করোনা ভ্যাকসিনের চূড়ান্ত অনুমোদন দিচ্ছে রাশিয়া ]

যুক্তরাষ্ট্রে অর্ধেক ভাইরাস পরীক্ষা বড় বাণিজ্যিক ল্যাবগুলোতে হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, গড়ে এসব জায়গা থেকে পরীক্ষার ফল আসতে চার দিনের বেশি সময় লেগে যাচ্ছে। এ অবস্থার পরিবর্তন ঘটাতে হবে।

আরও পড়ুন ::

Back to top button