ঝাড়গ্রাম

ফের পিপিই পরে বাইকে রোগী নিয়ে হাসপাতালের পথে সত্যকাম


স্বপ্নীল মজুমদার, ঝাড়গ্রাম: তিনি অকুতোভয় যুবযোদ্ধা। ফের প্রমাণ করলেন সত্যকাম পট্টনায়েক। জ্বর-সর্দির উপসর্গের এক পরিযায়ী শ্রমিককে ফের নিজের বাইকের পিছনে চাপিয়ে হাসপাতালে নিয়ে গেলেন গোপীবল্লভপুর-১ ব্লক যুব তৃণমূলের সভাপতি। সতর্কতা হিসেবে রবিবারও পিপিই পরে ওই রোগীকে গোপীবল্লভপুর সুপার স্পেশালিটিতে নিয়ে যান সত্যকাম।

শ্যামসুন্দরপুর গ্রামের বাসিন্দা ওই শ্রমিক চারদিন আগে বেঙ্গালুরু থেকে গ্রামে ফেরেন। মাস ছ’য়েক আগে দুঘর্টনায় ওই শ্রমিকের ডান হাতটি অকেজো হয়ে যাওয়ায় তিনি সাইকেল চালিয়ে হাসপাতালে যেতে অপারগ ছিলেন। স্থানীয়রাও কেউ তাঁর সাহায্যে এগিয়ে আসেননি। বিষয়টি জানতে পেরেই এগিয়ে আসেন যুবযোদ্ধা সত্যকাম।

আরও পড়ুন : জোর করে তো আর প্রেম করতে পারব না: পায়েল

হাসপাতালে ওই রোগীকে নিয়ে গিয়ে করোনা পরীক্ষার নমুনা সংগ্রহ করার ব্যবস্থা করেন। পরে ওই রোগীকে বাড়িতে পৌঁছে দেন তিনি। গত ১০ অগস্ট একই ভাবে গোপীবল্লভপুরের সিজুয়া গ্রামের এক অসুস্থ ব্যক্তিকে হাসপাতালে নিয়ে গিয়েছিলেন সত্যকাম।

সেবারও পিপিই পরে বাইক চালিয়ে হাসপাতালে রোগী নিয়ে গিয়েছিলেন সত্যকাম। তাঁর এমন কাজের ভূয়সী প্রশংসা করে জেলা তৃণমূলের মুখপাত্র সুব্রত সাহা বলেন, “সত্যকাম প্রমাণ করেছেন, মানুষ মানুষের জন্য।”

 

আরও পড়ুন ::

Back to top button