আন্তর্জাতিক

আগামী এক দশকে পরমাণু অস্ত্র দ্বিগুণ করবে চীন: পেন্টাগন

আগামী এক দশকে পরমাণু অস্ত্র দ্বিগুণ করবে চীন: পেন্টাগন

চীনের সামরিক শক্তি নিয়ে মঙ্গলবার (১ সেপ্টেম্বর) প্রকাশিত পেন্টাগনের নতুন বার্ষিক প্রতিবেদন যুক্তরাষ্ট্রের জন্য উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে। মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দাবি, আগামী এক দশকের মধ্যে পরমাণু অস্ত্র অন্তত দ্বিগুণ করার লক্ষ্য নিয়ে এগোচ্ছে চীনারা।

তারা আরও বলেছে, চীনের সামরিক সরঞ্জামাদি আধুনিকায়নের ক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্রের সমকক্ষ হয়েছে অথবা কিছু ক্ষেত্রে ছাড়িয়ে গেছে। আল জাজিরা ও সিএনএন এক প্রতিবেদনে এই খবর প্রকাশ করেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চীন এরই মধ্যে জাহাজ নির্মাণ, ব্যালিস্টিক ও ক্রুস ক্ষেপণাস্ত্রের আধুনিকায়ন এবং আকাশ প্রতিরক্ষা পদ্ধতিতেও তারা ব্যাপক পরিবর্তন আনছে।

তারা বলছে, চীনের কাছে এখন দুইশর কিছু কম পরমাণু অস্ত্র আছে। আগামী এক দশকের মধ্যে চীনের পরমাণু ওয়ারহেডের সংখ্যা বর্তমানের চেয়ে অন্তত দ্বিগুণ হবে।

আরও পড়ুন : ‘নাভালনির ওপর রাশিয়ার নভিচক রাসায়নিক প্রয়োগ করা হয়েছে’

পেন্টাগন উদ্বেগ প্রকাশ করে জানিয়েছে, আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে চীন সরকার আন্তঃমহাদেশীয় ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের সংখ্যা অনেক বেশি বাড়াবে। এটা যুক্তরাষ্ট্রের জন্য উল্লেখযোগ্য মাত্রায় হুমকি হয়ে দেখা দেবে। এসব ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরমাণু ওয়ারহেড বহনে সক্ষম বলে প্রতিবেদনে দাবি করা হয়।

তবে যুক্তরাষ্ট্র যে পিছিয়ে থাকবে তা মনে করছেন না অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ অ্যাসোসিয়েশনের নিরস্ত্রীকরণ ও ঝুঁকি হ্রাসকরণ বিভাগের মহাপরিচালক কিংস্টন রিফ।

পেন্টাগনের প্রতিবেদন সম্পর্কে তার মতামত, চীনের পরমাণু অস্ত্র সম্পর্কে প্রতিবেদনে যা বলা হয়েছে তা যদি সত্যি হয়, তাহলেও রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র পরমাণু অস্ত্রের ক্ষেত্রে তখনও চীনাদের চেয়ে অনেক এগিয়ে থাকবে।

 

আরও পড়ুন ::

Back to top button