ঝাড়গ্রাম

কিশোর অভিনেতার জন্মদিনে শুভেচ্ছা জানালেন পরিচালক

কিশোর অভিনেতার জন্মদিনে শুভেচ্ছা জানালেন পরিচালক

প্রথম শর্ট ফিল্মে অভিনয় করে নজর কেড়েছিল স্কুলপড়ুয়া কিশোর। সেই রিদয় গুপ্তের ১৪ তম জন্মদিনে শুভেচ্ছা জানালেন ছবির পরিচালক তমাল চক্রবর্তী। শুভেচ্ছার পাশাপাশি, পড়াশোনায় মনোযোগী হওয়ার জন্যও নিজের ছবির অভিনেতাকে পরামর্শ দিলেন পরিচালক।

৫ সেপ্টেম্বর শনিবার শিক্ষকদিবসের দিনে রিদয়ের ১৪ বছর বয়স হল। এ বছর জানুয়ারিতে তমালের পরিচালনায় ‘একবিন্দু প্রাণ’ নামের শর্ট ফিল্মটি ইউটিউবে মুক্তি পায়। ছবিতে অভিনয় করে দর্শকদের নজর কেড়েছিল ঝাড়গ্রাম কুমুদকুমারী ইনস্টিটিউশনের অষ্টম শ্রেণির পড়ুয়া রিদয়।

জলের অপচয় ও জল সঙ্কটের সমস্যা নিয়ে তমালের তৈরি ছবিটি বিভিন্ন মহলে প্রশংসিত হয়। পেশায় গৃহশিক্ষক তমালের সিনেমা তৈরির কোন প্রথাগত প্রশিক্ষণ নেই। শুধুমাত্র নিজের ভাবনাকে সম্বল করে ২০১৮ সালে প্লাস্টিক দূষণের সমস্যা নিয়ে একটি শর্ট ফিল্ম (নিশব্দ ঘাতক) তৈরি করেছিলেন তমাল।

আরও পড়ুন : অবশেষে মুখ খুললেন মেসি

ওই ছবিটি চিত্রভারতীর চলচ্চিত্র উৎসবে সেরা নবীন কথাচিত্রের পুরস্কার পেয়েছিল। সেই পুরস্কার প্রাপ্তি তমালকে উৎসাহিত করে নতুন আরেকটি ছবির কাজ শুরু করতে। ২০১৯ সালে পানীয় জলের সমস্যা নিয়ে নতুন কাহিনীচিত্র তৈরির উদ্যোগ নেন তমাল। কিভাবে সচেতনতার অভাবে আমরা জল অপচয় করছি এবং কিভাবে বিন্দু বিন্দু সংরক্ষণ করে সঙ্কট মেটানো যায় সেটাই তমাল দেখিয়েছেন তার পরবর্তী শর্ট ফিল্মে।

মাত্র ১০ মিনিট ৪৩ সোএকোন্ডের ‘একবিন্দু প্রাণ’ ছবিতে এক স্কুল পড়ুয়ার চোখ দিয়ে জল অপচয়ের সমস্যা চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়েছেন পরিচালক। তমালের যেমন সিনেমা নিয়ে কোনও প্রথাগত প্রশিক্ষণ নেই। তেমনই এই ছবির অভিনেতা রিদয়, চিত্রগ্রাহক স্বপ্নীল মজুমদার সহ ইউনিটের সবাই প্রথমবার কাহিনীচিত্রে কাজ করেন।

ছবির কেন্দ্রীয় চরিত্র স্কুলপড়ুয়ার ভূমিকায় অভিনয় করেছিল রিদয় । রিদয় অবশ্য এর আগে কয়েকটি নাটকেও অভিনয় করেছে। এ বছর করোনার কারণে নতুন ছবি তৈরিতে হাত দেননি তমাল ও তাঁর ইউনিটের সদস্যরা। ফের কী নতুন কোনও ছবিতে অভিনয় করবে রিদয়? কিশোর অভিনেতার কথায়, ‘‘আমি পেশাদার অভিনেতা নই। তমাল স্যার যদি ফের সুযোগ দেন, তাহলে অভিনয় করব।’’

 

আরও পড়ুন ::

Back to top button