জাতীয়

ধর্ষণে ভারতের সংগে পাল্লা দিচ্ছে বাংলাদেশও

ধর্ষণে ভারতের সংগে পাল্লা দিচ্ছে বাংলাদেশও
প্রতীকী ছবি

ভারত ও বাংলাদেশে ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি যেহেতু মৃত্যুদন্ড নেই, তাই এই দুদেশে ধর্ষণের শিকার হচ্ছে বহু নারী। সংস্কৃতি গত দিক থাকায় প্রায় একই ধরনের অপরাধ দুদেশেই বিদ্যমান।

অপরাধীরা রাজনৈতিক দলের ছত্রছায়ায় এই ধরনের ঘৃন্য মনোভাবাপন্ন হয়ে পড়ে, ইদানিং ভারতের হাথরসের ধর্ষণ কান্ডে নাম জড়িয়ে যায় শাসক দল বিজেপি বিধায়কের ঘনিষ্ঠর। ঠিক তেমনই এক ঘঠনা ঘটে বাংলাদেশের নোয়াখালী জেলায়, ধর্ষণকারী শাসক দল আওয়ামী লীগের ঘনিষ্ঠ বলে জানা যায়।

আরও পড়ুন: স্ত্রীকে ১ বছর শৌচাগারে আটকে রেখেছিল স্বামী

হাথরস ধর্ষণ কান্ডের পর ভারত জুড়ে যেমন উত্তাল হয়ে পড়ে, ঠিক তেমনই নোয়াখালী ধর্ষণ কান্ডের পর ও বাংলাদেশে গন আন্দোলন গড়ে উঠেছে। নুর বাহিনী নামে একদল আন্দোলন কারী ঢাকার রাজপথ জুড়ে সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ প্রদর্শন করতে থাকে।

টনক নড়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার,তড়িঘড়ি মন্ত্রী সভায় পাশ করান ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি যদি মৃত্যুদন্ড। তাতেও আন্দোলন কারীদের থামাতে ব্যার্থ শেখ হাসিনার সরকার। এই সুযোগে টা কাজে লাগাচ্ছে বিরোধী দলগুলিও। তারাও সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনে সামিল হচ্ছে।

আরও পড়ুন ::

Back to top button