টলিউড

সামান্য উন্নতি সৌমিত্রবাবুর শারীরিক অবস্থার

বর্ষীয়ান অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়

বুধবার প্রথম দফার ডায়ালিসিস হয়েছিল বর্ষীয়ান অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের। এদিন তাঁর দ্বিতীয় দফার ডায়ালিসিস সম্পন্ন হয়েছে। বেলভিউ ক্লিনিকের তরফে চিকিত্‍সক অরিন্দম কর বৃহস্পতিবার সন্ধের বুলেটিনে জানিয়েছেন, সৌমিত্রবাবুর দ্বিতীয় দফার ডায়ালিসিস নির্বিঘ্নে সম্পন্ন হয়েছে।

অতি সামান্য হলেও তাঁর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে। কথা বললে চোখ খুলে তাকাচ্ছেন তিনি। তবে এখনও তাঁর অবস্থা অতি সঙ্কটজনকই। রক্তক্ষরণের কারণে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের শরীরে হীমোগ্লোবীব মাত্রা কমেছে। তবে ওষুধ দিয়ে তা বাড়ানোর চেষ্টা হচ্ছে। এখনও ভেন্টিলেটর সাপোর্টেই রয়েছেন ফেলুদা।

তবে নতুন করে অক্সিজেনের মাত্রা বাড়ানো হয়নি। যেমন অ্যান্টিবায়োটিক চলছিল তেমনই চলছে। নতুন করে তাঁর জ্বর আসেনি। ইউরিয়া ও ক্রিয়েটিনিনের মাত্রাও স্বাভাবিক রয়েছে। সৌমিত্রবাবু মঙ্গলবার একেবারেই অচৈতন্য হয়ে পড়েছিলেন। গতকাল অতি সামান্য উন্নতি হয় তাঁর।

আরও পড়ুন: সেক্সি কোমরের ভাঁজে ক্রপটপে ঝড় তুললেন ‘বম্বশেল’ মধু

গ্লাসকো কোমা স্কেলে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের সচেতনতার মাত্রা ছিল ৯-১০। আজ তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১-১২। মঙ্গলবার বেলভিউ জানিয়েছিল সৌমিত্রবাবুর ইউরিয়া ও ক্রিয়েটিনিনের মাত্রা ঊর্ধ্বমুখী। ফুসফুসের সংক্রমণ রোখার জন্য একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছিলেন চিকিত্‍সকরা।

তা ছাড়া কোভিড সেরে যাওয়ার পর এখন নতুন করে নিউমোনিয়া ধরা পড়েছে ৮৫ বছর বয়সী অভিনেতার। সেটা নিয়েও উদ্বেগে রয়েছেন চিকিত্‍সকরা। করোনামুক্ত হওয়ার পর বেশ খানিকটা সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন সৌমিত্রবাবু। তাঁকে হাঁটানোর চেষ্টাও করা হয়েছিল।

কিন্তু স্নায়ুর সমস্যা থেকে পরিস্থিতি ক্রমশ জটিল দিকে চলে যায়। এদিন ডাক্তার অরিন্দম কর বলেছেন, ৮৫ বছর বয়সী একজন মানুষ তাঁর কেরিয়ারে যে লড়াই করেছেন কার্যত সেটাই করছেন। চিকিত্‍সকরাও তাঁদের ১০০ শতাংশ দিয়ে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

 

সুত্র: THE WALL

আরও পড়ুন ::

Back to top button