জাতীয়

বিহারে দ্বিতীয় দফার ভোটপ্রচারে ‘পরিবারতন্ত্র’ নিয়ে খোঁচা প্রধানমন্ত্রীর

বিহারে দ্বিতীয় দফার ভোটপ্রচারে 'পরিবারতন্ত্র' নিয়ে খোঁচা প্রধানমন্ত্রীর
প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

সমাজকে বিভক্ত করে যেভাবে হোক ভোট আদায়ে ব্যস্ত বিরোধীরা। মঙ্গলবার বিহার বিধানসভা নির্বাচনের ভোট প্রচারে চতুর্থবারের জন্য বিহার পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

আরারিয়ার জনসভা থেকে রাজ্যের শাসকদলকে এভাবেই বিঁধলেন প্রধানমন্ত্রী। এনডিএ সরকার বিহারের সাধারণ মানুষের প্রাথমিক সমস্ত প্রয়োজনীয়তা প্রতিশ্রুতিমত পূরণ করেছিল। আরও একবার এনডিএ সরকার ক্ষমতায় এলে বিহারের মানুষের সমস্ত আকাঙ্খা পূরণ হবে।

এদিন নাম না করে কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি রাহুল গান্ধি এবং রাষ্ট্রীয় জনতা দলের প্রধান তেজস্বী যাদবকে কটাক্ষ করেন মোদি। তিনি বলেন, “বিহার এবং জেডিইউ সরকারের উপেক্ষা করে বিহারের মানুষ জঙ্গল-রাজ এবং দুই যুবরাজকে বাতিলের খাতায় রেখেছে।

আরও পড়ুন: অবিবাহিত মেয়ে গর্ভবতী, সম্মান হারানোর ভয়ে মেয়েকে নিজের হাতে কুপিয়ে খুন করল বাবা-মা

” এদিন মোদি কংগ্রেসের ‘দৈন্যতা’ নিয়ে কটাক্ষ করে বলেন, ‘কংগ্রেসের পরিস্থিতি এখন এতটাই খারাপ যে রাজ্যসভায় তাদের ১০০ জন সাংসদও অবশিষ্ট নেই।’

বিরোধী দলকে তীব্র আক্রমণ করেন এদিন মেদি। তিনি বলেন, “বিরোধী দল শিখেছে শুধুমাত্র সমাজকে বিভক্ত করতে। সবকিছুর উর্দ্ধে গিয়ে তারা শুধু নির্বাচনে জেতার চেষ্টা চালাচ্ছে। মানুষজনকে লুঠ করছে তারা।

তবে দেশবাসী জানেন আসল সত্য কী।” কেন্দ্র-রাজ্য যদি যৌথভাবে কাজ করে তাহলে বিহার আরও উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাবে। পরিবারতন্ত্র শেষ হয়ে গনতন্ত্রের জয় হবে এবার বিহারে, আত্মবিশ্বাসী নরেন্দ্র মোদি।

সুত্র: লেটেস্ট লি

মন্তব্য করুন ..

আরও পড়ুন ::

Back to top button