পূর্ব মেদিনীপুর

পটাশপুরে পঞ্চায়েত কার্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের দ্বারোদঘাটনে মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী

পটাশপুরে পঞ্চায়েত কার্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের দ্বারোদঘাটনে মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী
প্রতিকি ছবি

নিজস্ব সংবাদদাতা, পটাশপুর: পূর্ব মেদিনীপুর জেলার পটাশপুর-২ ব্লকের আড়গোয়াল গ্রাম পঞ্চায়েত কার্যালয়ের প্রশাসনিক ভবন ও প্রবেশদ্বারের দ্বারোদঘাটন করেন রাজ্যের মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। আড়গোয়াল গ্রাম পঞ্চায়েতের ভারপ্রাপ্ত প্রধান অপরেশ সাঁতরা জানিয়েছেন, ২৬ লক্ষ টাকা ব্যয়ে প্রশাসনিক ভবন ও ৫ লক্ষ টাকা ব্যয়ে প্রবেশদ্বার চতুর্দশ অর্থ কমিশনে নির্মিত করা হয়েছে।

আমরা সর্বদায় শুভেন্দুবাবুর পাশে থাকবো বলে অঙ্গীকার করছি। মোট ৫৪ লক্ষ্য টাকা ব্যয়ে নবনির্মিত ভবনের দ্বারোদঘাটন করেন রাজ্যের মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। তিনি দীপাবলীর আগাম শুভেচ্ছা বার্তা দিয়ে বলেন নানান উন্নয়ন মূলক কাজ ও রাজনৈতিক কর্মসূচীতে যোগদানের জন্য বহুবার পটাশপুরে এসেছি।

আরও পড়ুন: কোলাঘাটে পথ দুর্ঘটনায় মৃত এক আহত এক

২০০১ সালে বামফ্রন্টের কিরণময় নন্দের ভাই চৈতন্যময় নন্দ তৃণমূলের প্রার্থী হয়ে নিজের দাদার বিরুদ্ধে লড়াই না করার কথা ঘোষণা করেন সেই সময় ওই কেন্দ্রে তৃণমূল কংগ্রেসের আসনে লড়াই করেছিলেন শুভেন্দু অধিকারী।

পটাশপুরে পঞ্চায়েত কার্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের দ্বারোদঘাটনে মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী
প্রতিকি ছবি

পটাশপুরের নন্দ পরিবারের মন্ত্রী কিরনময় নন্দের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়ে ছিলাম তবে আমি সেই সময় ছিলাম এক অচেনা যুবক, আমার পরিচিতি ঠিক মতো ঘটেনি মানুষের সাথে তবু পটাশপুরের ১৮ টা বুথে ভোট লুট না হয়ে আমি প্রায় জিতে গিয়েছিলাম,মাত্র দুহাজার ভোটে পরাজিত হয়েছিলাম আমি বললেন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী।

পটাশপুর ব্লকের ত্রিস্তর পঞ্চায়েত উন্নয়ন সহ, রাজ্য সরকারের জনমুখী কাজ , কেন্দ্র রাজ্য গ্রামোন্নয়নের নানান কর্মসূচী , মহাত্মাগান্ধী একশোদিনের কাজ থেকে শুরু করে সমস্ত প্রকার কাজ আপনারা যত্ন সহকারে করেছেন ।

আরও পড়ুন: রাজ্যে বাড়ছে সুস্থতার হার

২২ শে মার্চ থেকে জনতা কার্ফু, লকডাউন, কোভিড এমন নানান অস্বস্তিকর সমস্যা মধ্য দিয়ে আমরা এগিয়ে চলেছি। যাঁর ফলে আমাদের অর্থনৈতিক বিপর্যয় মারাত্মক আকার নিয়েছে। আড়গোয়ালের বহু পরিযায়ী শ্রমিক বাইরে কাজে গিয়ে আটকে পড়েছিলেন তাঁরাও ট্রেন চলতে বাড়ি ফিরে এসেছিল, বর্তমানে আবার কাজের টানে অনেকে বাইরে চলে গিয়েছেন ।

পটাশপুরে পঞ্চায়েত কার্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের দ্বারোদঘাটনে মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী
প্রতিকি ছবি

লকডাউনের ৫০ দিনের মাথায় বা পরবর্তী সময় মানুষ যাতে খেতে পরতে পারে সে কারনে সমস্ত রাজনৈতিক দল, ক্লাব, সংস্থা, প্রভাবশালী ব্যক্তি প্রত্যেকেই মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছিল । একশো বছর অন্তর এমন মারন ভাইরাস আসে যে কারনে এই সময় করোনায় আমাদের সারা দেশ, আমাদের রাজ্য, সহ গোটা পৃথিবী আক্রান্ত, তাই প্রত্যেকেই নিরাপদে থাকুন, আমাদের আশা কর্মীরা তাঁরা কাজ করে চলেছে। তবু সকলকে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার পরামর্শ দেন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী।

যাওয়ার আগে শেষ কামড় দিচ্ছে তৃণমূল”: অগ্নিমিত্রা

পাশাপাশি পটাশপুর ২ নং ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি অপরেশ সাঁতরা বলেন শুভেন্দু বাবু আমাদের দলের মন্ত্রী, রাজনৈতিক জীবন শুরু থেকে তাঁর সাথে নিবিড় যোগ সে কারনে দাদার পাশে আছি থাকব, এবং ২০২১ শের বিধানসভায় পূর্ব মেদিনীপুরে ১৬ টি বিধানসভা কেন্দ্র তৃণমূল দখল করবে।

 

আরও পড়ুন ::

Back to top button