রূপচর্চা

মাত্র তিনদিনে শীতকালে পা ফাঁটা চিরতরে দূর করার দারুন কার্যকরী কৌশল, যেভাবে করবেন, রইলো স্টেপ বাই স্টেপ পদ্ধতি!

শীতকালের একটি দৈনন্দিন সমস্যা পা ফা-টা।গৃহস্থ বধূদের বিশেষত এই সমস্যা দেখা গেলেও ত্বকের রু-ক্ষ-তা-র জন্য শীতকালে এটি প্রায় অনেকের মধ্যেই দেখা যায়।এটি যে কতটা ক্ষ-তি-ক-র তা একমাত্র যারা এর ভু-ক্ত-ভো-গী তারাই বুঝবেন।এতে যে শুধু পা এর সৌন্দর্যই নষ্ট হয় তাই নয় অত্যন্ত বে-দ-না-দা-য়-ক ও।পা ফা-টা থেকে মুক্তি পেতে আমরা অনেক ক্রীমই ব্যবহার করি,

কিন্তু এতে ঠিক হতে অনেকটাই সময় লেগে যায়।তাই আসুন জেনে নেওয়া যাক ঘরোয়া কিছু পা ফা-টা নিরাময়ের পদ্ধতি।সহজেই বাড়িতে উপস্থিত কিছু জিনিস দিয়ে আপনারা এই উপায় গু-লি করতে পারবেন। ভেসলিন আমরা সবাই কমবেশি ব্যবহার করে থাকি শীতকালে।এটি আমাদের ত্বককে শু-ষ্কতা থেকে দূর রাখতে সাহায্য করে।প্রথমেই একটি পরিষ্কার বাটিতে নির্দিষ্ট পরিমান ভেসলিন নিয়ে নিন।

আরও পড়ুন : ব্রণ তাড়াতে ঘরোয়া ৫ উপায়

এরপর এতে ৩-৪ ফোঁটা লেবুর রস যোগ করুন।কিছুক্ষন ভালোভাবে মিশিয়ে লেবুর রস আর ভেসলিনের মিশ্রণটি তৈরি করে নিন। দ্বিতীয় ধাপে প্রতিদিন রাতে শোওয়ার আগে কিছুটা পরিমাণ ঈশোদুষ্ণ জল নিয়ে যেকোনো মাথার শ্যাম্পু মিশিয়ে নিন তাতে।এরপর এতে কিছুক্ষন পা ডুবিয়ে রেখে দিন।৫-৬ মিনিট পর পা তুলে কোনো পরিষ্কার কাপড় দিয়ে মুছে নিন।

এরপর ওই লেবুর রস মিশ্রিত ভেসলিনটি পা এর ফাটা অংশে ভালো করে লাগিয়ে নিন।চেষ্টা করবেন এরপর মোজা পরে শোওয়ার। লেবুর প্রয়োগ বহুকাল ধরেই রূপ চর্চায় হয়ে আসছে।নিয়মিত ৩ দিন ঠিকঠাকভাবে এই উপায়টি অবলম্বন করলে খুব সহজেই যে কোনো পা ফাটার সমস্যা দূর হবে।এটি সম্পূর্ণ ঘরোয়া ,কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াহীন পদ্ধতি।

আরও পড়ুন ::

Back to top button