রাজ্য

রাজ্যের সমস্ত মানুষকে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের আওতায় আনল রাজ্য সরকার

রাজ্যের সমস্ত মানুষকে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের আওতায় আনল রাজ্য সরকার
বৃহস্পতিবার নবান্নে স্বাস্থ্যসাথীর স্মার্টকার্ড দেখাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

রাজ্যের সমস্ত নাগরিককে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের আওতায় আনল পশ্চিমবঙ্গ সরকার। বৃহস্পতিবার নবান্নে একথা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রকল্পের অধীনে প্রতিটি পরিবার পাবে ১টি করে স্মার্টকার্ড। সেই কার্ডের মাধ্যমে বছরে ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত চিকিৎসা করাতে পারবেন তারা।

মুখ্যমন্ত্রী এদিন বলেন, রাজ্যের ৭.৫ লক্ষ মানুষ আগে থেকেই স্বাস্থ্যসাথীর অধীনে ছিলেন। বাকিদের মধ্যে যারা অন্য কোনও স্বাস্থ্যবিমার সুযোগ পান না তাদের স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের আওতায় আনল রাজ্য সরকার। এই প্রকল্পের অধীনে বছরে ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত বিনামূল্যে চিকিৎসা করাতে পারবে প্রতিটি পরিবার।

মুখ্যমন্ত্রী জানান, প্রকল্পে নাম নথিভুক্ত করলে পরিবারের সব থেকে বয়ষ্ক মহিলা সদস্যের নামে দেওয়া হবে একটি কার্ড। সেই কার্ডের অধীনে তিনি তাঁর পরিবার এমনকী মা-বাবারও চিকিৎসা করাতে পারবেন।

আরও পড়ুন: প্রেমিকের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক কেমন, তরুণীকে প্রশ্ন বাইকচালকের! অতঃপর

মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, রাজ্যের ১,৫০০ বেসরকারি হাসপাতালে এই প্রকল্পের অধীনে মিলবে ক্যাশলেস সুবিধা। এছাড়া দিল্লির AIIMS ও ভেল্লুরুর CMC হাসপাতালেও এই কার্ড ব্যবহার করা যাবে।

মমতা বলেন, ১ ডিসেম্বর থেকে ‘দুয়ারে দুয়ারে সরকার’ অভিযানে এই প্রকল্পের অধীনে নাম নথিভুক্ত করতে পারবেন সাধারণ মানুষ। যারা কোনও সরকারি স্বাস্থ্যবিমার অধীনস্থ নন তাঁরা আবেদন করতে পারবেন। এই প্রকল্প বাস্তবায়নে সরকারের বার্ষিক ২,০০০ কোটি টাকা অতিরিক্ত খরচ হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

সুত্র: Hindustan Times বাংলা

আরও পড়ুন ::

Back to top button