বীরভূম

অনুব্রতর বিরুদ্ধে ফের বিস্ফোরক সিদ্দিকুল্লা

বীরভূমের তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের বিরুদ্ধে অভিযোগ যেন শেষই হতে চাইছে না পূর্ব বর্ধমানের মঙ্গলকোটের বিধায়ক তথা রাজ্যের মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরীর। কিছুদিন আগেই তিনি অভিযোগ করেছিলেন, তাঁর অনুগামীদের গাঁজা কেসে ফাঁসাচ্ছেন অনুব্রত।

এবার তিনি কেষ্টবাহিনীর বিরুদ্ধে তাঁর অনুগামীদের মারধর, হুমকির অভিযোগ তুললেন। শুক্রবার এক কর্মসূচি থেকে ফেরার পথে বর্ধমান সার্কিট হাউসে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন মন্ত্রী। সেখানে সিদ্দিকুল্লা বলেন, বীরভূমের গরম হাওয়া বর্ধমানে ঢুকুক তা তিনি চান না।

তিনি ইচ্ছে করলেই মঙ্গলকোটে বড় বড় মিছিল করতে পারেন। কিন্তু তিনি দলের শৃঙখলাবদ্ধ কর্মী। তিনি দলের নিয়ম মেনে চলেন। সিদ্দিকুল্লা আরও বলেন, তিন বছর আগে বোলপুর গেষ্ট হাউসে একটি বৈঠকে সমাধানসূত্র খোঁজার চেষ্টা হয়। সেখানে সুব্রত বক্সী উপস্থিত ছিলেন।

অনুব্রত-সহ ছ’জন সেখানে ছিলেন। সেই বৈঠকে সুব্রত বক্সী সবাইকে মিলেমিশে কাজ করার কথা বলেছিলেন। কিন্তু তারপরও অনুব্রত ও তাঁর দলবল সেটা মানেনি বলেই অভিযোগ করেছেন তিনি। মন্ত্রীর অভিযোগ, বারবার ঝামেলা করছে কেষ্টবাহিনী। তাঁর অনুগামীদের মারধোর করছে, হুমকি দিচ্ছে।

আরও পড়ুন: থাকলে থাকুন, নইলে লুটেরাদের দলে যান,বার্তা মমতার

বাংলা আবাস যোজনায় অনেকেই ঘর পাচ্ছেন না। তাঁরা অভিযোগ করতে এলে তাঁদের শাসানো হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেছে তিনি। এতে দলের ক্ষতি হচ্ছে বলেই মত তাঁর। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মানুষের স্বার্থে অনেক কাজ করা স্বত্ত্বেও তার সুফল মানুষ পাচ্ছেন না বলেই অভিযোগ সিদ্দিকুল্লার।

দলীয় মন্ত্রীর এই অভিযোগের জবাবে অবশ্য কোনও মন্তব্য করেননি অনুব্রত মণ্ডল। এর আগে সিদ্দিকুল্লা অভিযোগ করেন, মঙ্গলকোটে অজয় নদের ধারে ২২ টি বালিঘাট আছে। এগুলি বৈধ ঘাট। কিন্তু সেখানে একই স্লিপ দিয়ে এক গাড়ির জায়গায় বেশী সংখ্যক বালি বোঝাই গাড়ি নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

এ সবই হচ্ছে অনুব্রত মণ্ডলের মদতে। দেখার কেউ নেই। মঙ্গলকোটের বিধায়ক হলেন সিদ্দিকুল্লা। অন্যদিকে বোলপুর লোকসভা কেন্দ্রের অন্তর্ভূক্ত পূর্ব বর্ধমানের তিনটি বিধানসভা কেন্দ্র আউশগ্রাম, মঙ্গলকোট ও কেতুগ্রামের দলীয় পর্যবেক্ষক হলেন বীরভূমের তৃণমূল জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল।

তাঁর বিরুদ্ধে সিদ্দিকুল্লার ক্ষোভ আগেও ছিল। অনুব্রতর অধীনে যে তিনি কাজ করতে অরাজি তা আগেও অনেকবার প্রকাশ্যে বলেছেন সিদ্দিকুল্লা। ফের একবার নিজের ক্ষোভ উগরে দিলেন তিনি।

 

সুত্র: THE WALL

আরও পড়ুন ::

Back to top button