আন্তর্জাতিক

করোনায় বিশ্বব্যাপি মৃত্যু ১৭ লাখ ৪১ হাজার, আক্রান্ত প্রায় ৮ কোটি

করোনায় বিশ্বব্যাপি মৃত্যু ১৭ লাখ ৪১ হাজার, আক্রান্ত প্রায় ৮ কোটি - West Bengal News 24

বিশ্বব্যাপী প্রতিদিনই মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। ইতোমধ্যে মারা গেছেন ১৭ লাখ ৪১ হাজারের বেশি হাজার মানুষ। আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় আট কোটি। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন চার কোটি ৪৬ লাখের বেশি মানুষ।

আজ শুক্রবার জনস হপকিনস ইউনিভার্সিটির করোনাভাইরাস রিসোর্স সেন্টার এ তথ্য জানিয়েছে।

জনস হপকিনস ইউনিভার্সিটির আজ সকাল সোয়া ১০টার তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন সাত কোটি ৯৩ লাখ ২৭ হাজার ৪০৫ জন এবং মারা গেছেন ১৭ লাখ ৪১ হাজার ৬৮৫ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন চার কোটি ৪৬ লাখ ৬৮ হাজার ২২৭ জন।

করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যু যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন এক কোটি ৮৬ লাখ ৪৯ হাজার ৩৫২ জন এবং মারা গেছেন তিন লাখ ২৯ হাজার ২২ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন চার কোটি ৩২ লাখ ৭০ হাজার ৫৩৬ জন।

যুক্তরাষ্ট্রের পর সবচেয়ে বেশি মৃত্যু দক্ষিণ আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে। দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ৭৪ লাখ ২৩ হাজার ৯৪৫ জন, মারা গেছেন এক লাখ ৮৯ হাজার ৯৮২ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৬৫ লাখ ১২ হাজার ৭১৭ জন।

আরও পড়ুন : পাকিস্তানে একটি ডিমের দাম ৩০ রুপি

সংক্রমণের দিক থেকে দ্বিতীয় ও মৃত্যুর দিক থেকে তৃতীয়তে থাকা ভারতে আক্রান্ত হয়েছেন এক কোটি এক লাখ ২৩ হাজার ৭৭৮ জন, মারা গেছেন এক লাখ ৪৬ হাজার ৭৫৬ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৯৬ লাখ ৯৩ হাজার ১৭৩ জন।

মৃত্যুর সংখ্যার দিক থেকে চতুর্থতে রয়েছে মেক্সিকো। দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত এক লাখ ২১ হাজার ১৭২ জন মারা গেছেন। আক্রান্ত হয়েছেন ১৩ লাখ ৬২ হাজার ৫৬৪ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন ১০ লাখ ১৫ হাজার ২৫৬ জন।

ভাইরাসটির সংক্রমণস্থল চীনে আক্রান্ত হয়েছেন ৯৫ হাজার ৩৮৩ জন, মারা গেছেন চার হাজার ৭৬৯ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৮৯ হাজার ২০৪ জন।

উল্লেখ্য, গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, দেশে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত পাঁচ লাখ ছয় হাজার ১০২ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। মারা গেছেন সাত হাজার ৩৭৮ জন। আর সুস্থ হয়েছেন চার লাখ ৪৬ হাজার ৬৯০ জন।

মন্তব্য করুন ..

আরও পড়ুন ::

Back to top button