জাতীয়

মাত্র ৬ মাসে মেহবুবা মুফতির ঘর সাজাতে কেন্দ্র সরকার কত খরচ করেছে জানেন?

মাত্র ছ’মাসে ঘর সাজাতে ৮২ লক্ষ টাকা খরচ করেছিলেন কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি (Mehbooba Mufti)। বাড়ি সাজানোর সম্পূর্ণ খরচ জুগিয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকার। ২০১৮-এর জানুয়ারি থেকে জুন মাস পর্যন্ত কেন্দ্রের তহবিল থেকে খরচ হয়েছে এই টাকা। সম্প্রতি করা এক আরটিআই-এ ফাঁস হল এই তথ্য।

মেহবুবা মুফতির পিডিপি ও বিজেপি গাঁটছড়া বেঁধে সরকার গড়েছিল কাশ্মীরে। সেই জোট সরকারের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন মেহবুবা মুফতি। সেই সময় গুপকার রোডের মুখ্যমন্ত্রীর সরকারি বাসভবনকে নতুন রূপে সাজিয়েছিলেন তিনি। সেই সাজসজ্জার দরুণ সরকারি তহবিল থেকে দেদার অর্থ খরচের বিষয়টি এবার প্রকাশ্যে এল।

কাশ্মীরের সমাজকর্মী ইনাম-উন-নবি-সওদাগর ২০২০-এর সেপ্টেম্বরের ১ তারিখে একটি আরটিআই করেছিলেন। তাঁর জবাবেই এই তথ্য সামনে এসেছে। জানা গিয়েছে, ওই ছ’মাসে নতুন নতুন আসবাব, বিছানার চাদর, টিভি-সহ একাধিক নতুন সামগ্রী কিনেছিলেন মেহবুবা। কোন আসবাব কিনতে কত টাকা খরচ হয়েছিল, সে তথ্যও উঠে এসেছে এই আরটিআই-এ। ২০১৮ সালের ২৮ মার্চ একটি কার্পেট কিনেছিলেন কাশ্মীরের তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী। যার দাম ছিল ২৮ লক্ষ টাকা। এরপর জুন মাসে ২২ লক্ষ টাকা দিয়ে একটি এলইডি টিভি কিনেছিলেন তিনি।

আরও পড়ুন : মাদকচক্রে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার নায়িকা

এখানেই শেষ নয়ষ আরটিআইতে বলা হয়েছে, একটি গার্ডেন আমব্রেলা বা বাগানের ছাতা কিনতে ২ লক্ষ ৯৪ হাজার ৩১৪ টাকা, ফেব্রুয়ারি মাসে বিছানার চাদর কিনতে ১১ লক্ষ টাকার বেশি খরচ করেছেন। বিপুল অর্থ খরচ করেছেন বাসনপত্র কিনতে। আর তাঁর এই বিলাসব্যসনের টাকা গিয়েছে সরকারের ট্যাঁক থেকে। এই আরটিআইয়ের রিপোর্ট সামনে আসার পরই একাধিক প্রশ্ন তৈরি হয়েছে।

ওয়াকিবহাল মহলের প্রশ্ন, টিভি-চাদর-কার্পেট কেনারা নামে সরকারি টাকা অন্যক্ষেত্রে খরচ হয়নি তো? ঘুরপথে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের তহবিলে জমা পড়েনি তো সরকারি টাকা? হাজার প্রশ্ন থাকলে উত্তর এখনও অজানা।

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

আরও পড়ুন ::

Back to top button