জাতীয়

টাকা পাচারের অভিযোগ, রোজভ্যালি কাণ্ডে শুভ্রা কুণ্ডুকে গ্রেফতার করল সিবিআই


টাকা পাচারের অভিযোগ, রোজভ্যালি কাণ্ডে শুভ্রা কুণ্ডুকে গ্রেফতার করল সিবিআই - West Bengal News 24


রোজভ্যালি কান্ডে গ্রেফতার গৌতম কুণ্ডুর স্ত্রী শুভ্রা কুণ্ডু। ২০২০ সালে শুভ্রা কুণ্ডুকে তাঁর বাড়িতে গিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করেছিল ইডি-র অফিসাররা। ওই সময় তাঁর বিদেশে যাওয়ার সঙ্গে রোজভ্যালির টাকাও বিদেশে পাচার হয়েছে বলে অনুমান করেছিলেন ইডি-র আধিকারিকরা। সেই বিষয়েই শুভ্রা কুণ্ডুকে দফায়-দফায় জিজ্ঞাসাবাদ করেছিলেন ইডি-র আধিকারিকরা।

শুভ্রা কুণ্ডুর দক্ষিণ কলকাতার আবাসনে ওইদিন পৌঁছেছিল ইডি-র ৩ আধিকারিক। গৌতম কুণ্ডুর একাধিক ব্যবসা তাঁর স্ত্রী শুভ্রা কুণ্ডুর নামে ছিল। ইডি-র আধিকারিকরা সে বিষয়ে প্রশ্ন করেছিলেন শুভ্রাকে। তাঁর নামে ঠিক কী কী ব্যবসা ছিল তা জানতে চেয়েছিলেন আধিকারিকরা। ব্যাবসা থেকে কত টাকা সংস্থা ঘরে তুলেছে সে বিষয়েও শুভ্রাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছিলেন অফিসাররা। প্রায় ৪ ঘণ্টা ধরে চলেছিল জিজ্ঞাসাবাদ পর্ব। তারপরে আজকের এই গ্রেফতার।


এর আগে ২০১৯ সালে রোজভ্যালিকাণ্ডে গৌতম কুণ্ডুর স্ত্রী শুভ্রা কুণ্ডুর নামে লুক আউট নোটিস জারি করেছিল ইডি। চিঠি পাঠিয়ে সতর্ক করা হয় ব্যুরো অফ ইমিগ্রেশনকে। ইডি সূত্রে খবর মিলেছিল, মামলার তদন্তকারীদের কাছে খবর ছিল, রোজভ্যালি কর্ণধার গৌতম কুণ্ডুর স্ত্রী শুভ্রা কুণ্ডু দেশ ছেড়ে পালাতে পারেন। সেই কারণেই ইডি-র তরফে চিঠি পাঠিয়ে ব্যুরো অফ ইমিগ্রেশনকে জানানো হয়, দেশের যে কোনও বিমানবন্দরে শুভ্রা কুণ্ডুর পাসপোর্ট জমা পড়লে, তা যেন সঙ্গে সঙ্গে বাজেয়াপ্ত করা হয়। এর আগে শুভ্রা কুণ্ডুর প্রিন্স আনোয়ার শাহ রোডের ফ্ল্যাটে হানা দিয়েছিল ইডি-র অফিসাররা। ইডি-র তরফে শুভ্রা কুণ্ডুকে তিন-তিনবার নোটিসও পাঠানো হয়। হাজিরা না দিলে, আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার কথা আগেই জানিয়েছিল ইডি।শ্ন করেছিলেন শুভ্রাকে। তাঁর নামে ঠিক কী কী ব্যবসা ছিল তা জানতে চেয়েছিলেন আধিকারিকরা। ব্যাবসা থেকে কত টাকা সংস্থা ঘরে তুলেছে সে বিষয়েও শুভ্রাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছিলেন অফিসাররা। প্রায় ৪ ঘণ্টা ধরে চলেছিল জিজ্ঞাসাবাদ পর্ব। তারপরে আজকের এই গ্রেফতার।

এর আগে ২০১৯ সালে রোজভ্যালিকাণ্ডে গৌতম কুণ্ডুর স্ত্রী শুভ্রা কুণ্ডুর নামে লুক আউট নোটিস জারি করেছিল ইডি। চিঠি পাঠিয়ে সতর্ক করা হয় ব্যুরো অফ ইমিগ্রেশনকে। ইডি সূত্রে খবর মিলেছিল, মামলার তদন্তকারীদের কাছে খবর ছিল, রোজভ্যালি কর্ণধার গৌতম কুণ্ডুর স্ত্রী শুভ্রা কুণ্ডু দেশ ছেড়ে পালাতে পারেন। সেই কারণেই ইডি-র তরফে চিঠি পাঠিয়ে ব্যুরো অফ ইমিগ্রেশনকে জানানো হয়, দেশের যে কোনও বিমানবন্দরে শুভ্রা কুণ্ডুর পাসপোর্ট জমা পড়লে, তা যেন সঙ্গে সঙ্গে বাজেয়াপ্ত করা হয়। এর আগে শুভ্রা কুণ্ডুর প্রিন্স আনোয়ার শাহ রোডের ফ্ল্যাটে হানা দিয়েছিল ইডি-র অফিসাররা। ইডি-র তরফে শুভ্রা কুণ্ডুকে তিন-তিনবার নোটিসও পাঠানো হয়। হাজিরা না দিলে, আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার কথা আগেই জানিয়েছিল ইডি।

সূত্র: কলকাতা২৪x৭



Related Articles

Back to top button