বিচিত্রতা

প্রেমিকা না পেয়ে রোবটকে বিয়ে!

প্রেমিকা নেই, তাই বলে কি বিয়ে হবে না? চাইলে অবশ্যই হবে। তবে চীনের প্রকৌশলী ঝেং জিয়াজিয়ার বিয়েটা একটু অন্য ধরনের। তাঁর কোনো প্রেমিকা ছিল না। অনেক চেষ্টার পরও জীবনে কোনো প্রেমিকা জোটাতে পারেননি ৩১ বছরের ঝেং। চরম হতাশা আর বিষণ্নতা নিয়ে দিন পার করছিলেন তিনি। এ অবস্থায় আবার পরিবার থেকে বিয়ের চাপ। বউ খোঁজার হ্যাপাও কম নয়। তাই এসব ঝক্কি এড়াতে নিজের তৈরি ‘একটি মেয়ে রোবটকে’ ঘটা করে বিয়ে করেছেন তিনি।

আজ সোমবার সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ঝেজিয়াং প্রদেশের হ্যাংঝুতে গত শুক্রবার নিজের তৈরি রোবটকে আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়ে করেছেন ঝেং জিয়াজিয়া। ওই রোবটটির নাম ইংইং।

প্রতিবেদনে বলা হয়, গত বছরের শেষের দিকে ঝেং নিজের নকশায় ইংইং নামের ওই রোবটটি তৈরি করেন। ইংইং বেশ কয়েকটি শব্দ বলতে পারে। এ ছাড়া চীনের বেশ কিছু চরিত্র ও ছবিও চিহ্নিত করতে পারে ওই রোবট।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, বিয়ের দিন রোবট ইংইং কনের সাজে ছিল। চীনের ঐতিহ্যবাহী বিয়ের রীতি অনুযায়ী, তার পরনে কালো পোশাক ছিল। মাথা ঢাকা ছিল লাল স্কার্ফ দিয়ে। বিয়ের অনুষ্ঠানে ঝেংয়ের মা ও তাঁর কয়েকজন বন্ধু উপস্থিত ছিলেন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে বর ঝেং জিয়াজিয়ার এক বন্ধু বলেন, জীবনে প্রেমিকা খুঁজে না পাওয়ায় খুব হতাশা ও বিষণ্নতায় ভুগছিলেন ঝেং।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘স্ত্রীকে’ নিয়ে ঝেংয়ের এখন পরিকল্পনার শেষ নেই। তাঁর রোবট ‘স্ত্রীকে’ আরও উন্নত করার চিন্তা করছেন তিনি। স্ত্রী যেন নির্বিঘ্নে হাঁটাচলা করতে পারে এবং গৃহস্থালির টুকিটাকি কাজ করতে পারে, সেদিকেই এখন খেয়াল ঝেংয়ের।

ঝেং জিয়াজিয়া একসময় চীনের বহুজাতিক মোবাইল ফোন প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়েতে চাকরি করতেন। ২০১৪ সালে ওই চাকরি থেকে পদত্যাগ করেন। পরে গত বছর চীনের ইন্টারনেটভিত্তিক প্রতিষ্ঠান হ্যাংঝুস ড্রিম টাউনে যোগ দেন।

আরও পড়ুন ::

Back to top button