রাজনীতিরাজ্য

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সম্পদ কমেছে ৪৫.০৮ শতাংশ

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সম্পদ কমেছে ৪৫.০৮ শতাংশ - West Bengal News 24

এ যেন শেয়ানে-শেয়ানে টক্কর। পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনে ‘বাংলার মেয়ে মমতা’স্লোগানে আলোড়ন তুলছে মমতা ব্যানার্জীর দল তৃণমূল কংগ্রেস। পাল্টা জবাবে গর্জে ওঠেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী ও বিজেপির সভাপতি নরেন্দ্র মোদি।

এরই মধ্যে দিয়ে একুশের বিধানসভা নির্বাচনে নন্দীগ্রাম থেকে লড়াই করছেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ইতিমধ্যেই মনোনয়নপত্র পেশ করেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো। নিয়ম মতো তাঁর স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তির পরিমাণও তিনি জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনকে। সেই তথ্য সামনে আসতেই দেখা গেল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সম্পত্তির পরিমাণ ৪৫ শতাংশেরও বেশি কমেছে। তৃণমূলনেত্রী তাঁর যে সম্পত্তির পরিমাণ নির্বাচনী হলফনামায় পেশ করেছেন, তাতে দেখা যাচ্ছে তাঁর সম্পত্তির পরিমাণ টাকার অঙ্কে ১৬ লক্ষ ৭২ হাজার ৩৫২ টাকা।

আরো পড়ুন :মীরজাফর শুভেন্দুর ভাই সারাদিন মদ খায়, ঝাড়গ্রামের সভায় বললেন সৌগত

২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে হলফনামা পেশের সময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন যে তাঁর সম্পত্তির পরিমাণ ছিল ৩০.৭৫ লক্ষ টাকা। আর ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনে মনোনয়নপত্র পেশের সময় জমা দেওয়া হলফনামায় তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন যে, তাঁর সম্পত্তির পরিমাণ টাকার অঙ্কে ১৬ লক্ষ ৭২ হাজার ৩৫২ টাকা ৭১ পয়সা। অর্থাৎ তৃণমূল সুপ্রিমোর সম্পত্তির পরিমাণ ৪৫.০৮ শতাংশ হারে কমেছে। রাজনৈতিক নেতাদের গুণিতক হারে সম্পদ বৃদ্ধিটাই যেখানে সব সময় দেখা যায় সেখানে কমে গেল পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর সম্পদ। বিষয়টি নিয়ে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা ভারতের রাজনীতিতে নজির বলে মনে করছেন।

উল্লেখ্য, তৃণমূলের মমতা ভুঁইয়া ও সুকুমার দে’র সম্পত্তির পরিমাণ যথাক্রমে ৩৭.৫৩ শতাংশ ও ৩৬.১৮ শতাংশ হারে কমেছে।

দলনেত্রীর সম্পত্তির পরিমাণ উল্লেখযোগ্য হারে কমলেও সম্পত্তি কয়েক গুণে বেড়েছে তৃণমূলেরই একাধিক নেতার। কাকদ্বীপের বিদায়ী বিধায়ক তথা রাজ্যের বিদায়ী মন্ত্রী মন্টুরাম পাখিরা। আকাশছোঁয়া হয়েছে তাঁর সম্পত্তির পরিমাণ। মন্টুরাম পাখিরার সম্পত্তির পরিমাণ বেড়েছে ৭৩৫ শতাংশেরও বেশি।

তবে দলের অন্য একাধিক বিধায়কের সম্পত্তি বাড়লেও ২০১৬ সালে মমতা দ্বিতীয়বার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মসনদে আসার পর কমেছে তাঁর সম্পত্তির পরিমাণ। গত ৫ বছরে তাঁর সম্পত্তির পরিমাণ ৪৫ শতাংশেরও বেশি কমেছে। মনোনয়নপত্র পেশের সময় জমা দেওয়া হলফনামায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই এই তথ্য জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনকে।

হলফনামা জমা দিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নির্বাচন কমিশনকে জানিয়েছেন, তাঁর নিজের নামে কোনও গাড়ি নেই। হাতে নগদ ৬৯ হাজার ২৫৫ টাকা রয়েছে তাঁর। ব্যাঙ্কে ১৩.৫৩ লক্ষ টাকা রয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। হলফনামায় তৃণমূল সুপ্রিমো আরও জানিয়েছেন, তাঁর কাছে ৯ গ্রাম ৭৫০ মিলিগ্রামের মতো গয়না রয়েছে

মন্তব্য করুন ..

আরও পড়ুন ::

Back to top button