আন্তর্জাতিক

নাসার তালিকায় ‘স্বাধীন দেশ’ তাইওয়ান, উত্তেজিত চীন

চীনের মূল ভূখন্ড থেকে বিচ্ছিন্ন তাইওয়ানকে নিজেদেরই অংশ মনে করে চীন। তাই বরাবরই তাইওয়ান নিজেদের বলে দাবি করে আসছে চীনের কমিউনিস্ট সরকার। সম্প্রতি মার্কিন মহাকাশ সংস্থা নাসা তাদের ওয়েবসাইটে তাইওয়ানকে দেশ হিসেবে উল্লেখ করেছে। এতে ফুঁসছে চীন। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এ তথ্য জানিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম ব্লুমবার্গের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘তাইওয়ানের কূটনীতক ব্যাপারে বেইজিংয়ের মুখপাত্র ঝু ফেংলিয়ান জানান, তাইওয়ানকে দেশ হিসেবে উল্লেখ করে নাসা চীনের ১ দশমিক ৪ বিলিয়ন মানুষের অনুভূতিতে আঘাত করেছে।’

আরো পড়ুন : দুবাইয়ে ব্যালকনিতে নগ্ননারীর দল, অতঃপর…

গত বুধবার ঝু ফেংলিয়ান নিয়মিত ব্রিফিংয়ে বলেন, ‘মহাকাশ গবেষণা সংস্থাটিকে তাদের ভুল অবিলম্বে শোধরাতে হবে। এটি অমার্জনীয় ভুল।’

সম্প্রতি করোনাভাইরাসসহ বেশকিছু ইস্যুতে চীন-যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে সম্পর্কের টানাপোড়েন তৈরি হয়েছে। এর মধ্যে নাসার কর্মকাণ্ডের বিব্রত চীন। তাইওয়ানকে দেশ হিসেবে উল্লেখ করায় সঙ্গে সঙ্গে এর প্রতিবাদও জানিয়েছে দেশটির কমিউনিস্ট সরকার।

‘সেন্ড মাই নেম টু মার্স’ নামে একটি ওয়েবসাইট খুলেছে মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা। ভবিষ্যতে মঙ্গলগ্রহ যাত্রায় যারা নিজেদের নাম পাঠাতে চায়, এই ওয়েবসাইটে তাদের বিস্তারিত নথি দিয়ে সাইন ইন করার ব্যবস্থা করেছে। ওয়েবসাইটটিতে অন্যান্য দেশের পাশাপাশি তাইওয়ানও অর্ন্তভূক্ত হয়েছে। আর তাইওয়ানকে দেশ হিসেবেই উল্লেখ করেছে মহাকাশ গবেষণা সংস্থাটি। এতেই ক্ষেপেছে চীন। নাসাকে অবিলম্বের তাদের ‘ভুল’ ঠিক করার আহ্বান জানিয়েছে দেশটির কমিউনিস্ট সরকার।

আরও পড়ুন ::

Back to top button