রাজ্য

ফলপ্রকাশের পর ৫ কর্মীর মৃত্যু, রাজভবনে নালিশ বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের


ক্ষমতায় আবার পুরোদমে বসার আগেই রাজ্যে সন্ত্রাস শুরু করেছে তৃণমূল। সোমবার সাংবাদিক সম্মেলন করে এমনই অভিযোগ আনলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। ভোট গণনার পর থেকে তৃণমূলের হামলায় তাঁদের দলের ৫ জন কর্মী, সমর্থক খুন হয়েছেন বলে অভিযোগ করেন তিনি। এই অভিযোগ নিয়ে বিজেপির প্রতিনিধিদল রাজভবনে গিয়ে রাজ্যপালের দ্বারস্থ হয় এদিন।

রবিবার একুশের বিধানসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশিত হয় রাজ্যে। ২১৩টি আসন পেয়ে ফের সরকার গড়তে চলেছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন তৃণমূল। আর মূল বিরোধী দল হিসেবে উঠে এসেছে বিজেপি। এরপরেই ব্যাপক রাজনৈতিক সন্ত্রাস শুরু করেছে রাজ্যের ভাবী শাসকদল। অভিযোগ এমনটাই।

সোমবার মুরলীধর সেন লেনের দলীয় কার্যালয়ে সাংবাদিক বৈঠকে দিলীপ ঘোষ অভিযোগ করে বলেন, ‘ফের পুরোপুরি ক্ষমতায় আসার আগেই রাজ্যে এত সন্ত্রাস শুরু করেছে। পুলিশ নীরব দর্শক। প্রশাসনিক আধিকারিকদের কাছে আবেদন করছি, এগুলো দেখুন এবংযথাযথ ব্যবস্থা নিন।’

দলীয় কর্মীদের খুন করা হচ্ছে। এই অভিযোগ নিয়ে বিজেপির প্রতিনিধিদল সোমবার রাজভবনেও যায়। অভিযোগ জানান রাজ্যপালকে। এদিকে, গণনার দিনই ট্যুইট করে রাজ্যে শান্তি বজায়র রাখার বার্তা দিয়েছিলেন রাজ্যপাল। রাজ্যের নানা প্রান্তে রাজনৈতিক হিংসার খবরে উদ্বেগপ্রকাশ করেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়।

তিনি এ নিয়ে বিস্তারিত রিপোর্ট নিতে রাজ্য পুলিশের ডিজি, কলকাতা পুলিশের সিপিকে ডেকে পাঠিয়েছেন তিনি। সোমবার ওই বৈঠকের কথাও জানালেন ট্যুইট করে।

সূত্র: এই মুহুর্তে

আরও পড়ুন ::

Back to top button