জাতীয়

করোনাকে হালকাভাবে নেবেন না, মৃত্যুর আগে কাতর আবেদন চিকিৎসকের, ভিডিও ভাইরাল

দিল্লিতে করোনার শিকার হয়েছিলেন ডাক্তার ডিম্পল আরোরা চাওলা। তখন তিনি গর্ভবতী। অক্সিজেনের মাত্রা হঠাত্‍ই কমতে শুরু করেছিল শরীরে, তবু দমার পাত্রী নন তিনি। করোনার সঙ্গে যুদ্ধ করতে করতে ওই অবস্থাতেই একটা ভিডিও করেছিলেন। পরিবার এবং পরিজনদের উদ্দেশে সতর্কতার বার্তা ছিল তাতে, ‘করোনাকে হাল্কাভাবে নেবেন না। এটা আসলে মারণ ভাইরাস।’ হয়ত তখনই ভেতরে ভেতরে জানতেন, যুদ্ধে শেষমেশ হেরেই যাবেন। তবু বাকিরা যাতে বাঁচে সেই চেষ্টাটুকু রেখে গেলেন ডিম্পল।

জানা যায়, এপ্রিলের শেষে ডাক্তার ডিম্পল চাওলার যখন করোনা ধরা পড়ে, তখন সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন তিনি। গর্ভের দ্বিতীয় সন্তান। কিন্তু ভাগ্যের ফেরে শেষ রক্ষা হল না। করোনা পজিটিভ হওয়ার দু’সপ্তাহ পরেই আলট্রাসাউন্ডে ধরা পড়ল না ভ্রূণের হৃত্‍স্পন্দন। জানা গেল, ইতিমধ্যেই মারা গেছে ভ্রূণ! ডিম্পলের প্রাণ বাঁচাতে তড়িঘড়ি সিজার করে গর্ভপাত করানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন চিকিত্‍সকরা।

আশা করা হয়েছিল, ৩৪ বছরের শক্ত সমর্থ ডিম্পল সমস্ত ধকল কাটিয়ে সুস্থ হয়ে উঠবেন। কিন্তু সকলের অলক্ষ্যে করোনার ফণা দুলছিল মাথার ওপর। হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন ডিম্পল। রেমডেসিভির, অক্সিজেন সবই চলেছিল। কিন্তু দু’রাউন্ড প্লাজমা থেরাপির পরও আর চোখ মেলেননি ডিম্পল।

গর্ভের শিশুটিকে হারানোর পরদিনই যুদ্ধে হার মেনে নিজেও চলে গেলেন। সংসারে রেখে গেলেন তিন বছরের শিশুপুত্র এবং স্বামী রবিশ চাওলাকে।

শোকে পাথর রবিশ জানালেন, তাঁর স্ত্রীর শেষ ইচ্ছে ছিল একটাই, করোনা থেকে বাঁচতে মানুষজনকে সতর্ক করে যাওয়া।

২ মিনিট ২০ সেকেন্ডের যে ভিডিওটি রেখে গেছেন ডিম্পল, জনস্বার্থে রবিশ সেই সতর্কতাই ছড়িয়ে দিতে চান বিশ্বে। এতেই তাঁর ডাক্তার স্ত্রীর আত্মা শান্তি পাবে, এমনটাই জানালেন রবিশ।

ডিম্পল মারা যাওয়ার পর তাঁর ভিডিও বার্তাটি এদিন সবার জন্য তুলে ধরলেন রবিশ। যেখানে ডিম্পল বলছেন, ‘ অনেক কষ্টের মধ্যে ভিডিওটা করছি। শুধু প্রত্যেককে বলছি, আমায় যাঁরা চেনেন তাঁরা আমার এখনকার অবস্থা দেখুন। এর থেকে শিক্ষা নিন। কথা বলতে পারছি না, এতটাই খারাপ অবস্থা… দয়া করে করোনা রোগটাকে হাল্কাভাবে নেবেন না!’

ডিম্পল তাঁর ভিডিওতে অনুরোধ জানান, বাড়ির বাইরে বেরোলে বা একাধিক ব্যক্তির উপস্থিতিতে সকলেই যেন মাস্ক পড়েন। পরিবার পরিজনদের কথা ভেবেই ভিডিওটি করেছিলেন ডিম্পল, কিন্তু সকলের কাছে বার্তা পৌঁছে দিতে স্ত্রীর স্মৃতিতে ভিডিওটি শেয়ার করেছেন রবিশ।

প্রসঙ্গত, গর্ভবতী এবং স্তনদানকারী মহিলাদের এখনও ভ্যাকসিনের আওতায় আনার উদ্যোগ নেয়নি স্বাস্থ্যমন্ত্রক। তাঁদের মতে এই দুই অবস্থায় করোনা ভ্যাকসিন নেওয়া ক্ষতিকারক হতে পারে।

আরও পড়ুন ::

Back to top button