বীরভূম

বোলপুরে তৃণমূল নেতাকে খুনের চেষ্টা!‌ আগেয়াস্ত্র সহ ধৃত যুবক

সুরজিত্‍ ঘোষ হাজরা

আগ্নেয়াস্ত্র সমেত স্থানীয় যুবককে পাকড়াও করে পুলিশের হাতে তুলে দিল বোলপুর শহরের মিশন কম্পাউন্ডের বাসিন্দারা। ধৃত যুবক স্থানীয় তৃণমূল নেতাকে খুন করার জন্যে এসেছিল বলেই অভিযোগ করছেন স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব।

স্থানীয় সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার রাতে সাড়ে ১০ টা নাগাদ স্থানীয় যুবক শচীনচন্দ্র গড়াইকে আগ্নেয়াস্ত্র সহ পাকরাও করে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। তার কাছে একটি নাইন এম এম পিস্তল উদ্ধার করা হয়েছে।

স্থানীয় তৃণমূল নেতা জীতেন পাসওয়ান অভিযোগ করেন যে তাকে খুন করার জন্যেই শচীনচন্দ্র গড়াই বন্দুক নিয়ে এসেছিল। অভিযুক্ত যুবক এলাকায় বিজেপি কর্মী বলেই পরিচিত।

এলাকার তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি, বোলপুর পৌরসভার নির্দেশ মতো বৃহস্পতিবার রাতে তারা যখন ঝড়বৃষ্টিতে এলাকায় ক্ষতিগ্রস্থ মানুষদের তালিকা নিয়ে আলোচনা করছিলেন তখন অভিযুক্ত ওই যুবককে বেশ কয়েকবার ‘সন্দেজনক’ ভাবে ঘোরাঘুরি করতে দেখা যায়। পাড়ারই ছেলে, তাই ডেকে বসালাদু-‌একটা কথাও হল।

হঠাত্‍ পায়ের খাঁজে বন্দুক দেখতে পান আমাদেরই এক কর্মী। সেটা বলতেই বন্দুক বের করে তাক করে। সকলে জাপটে ধরে ফেলে তাকে। তত্‍ক্ষণাত্‍ খবর দেওয়া হয় পুলিশকে, বলেই জানিয়েছেন স্থানীয় তৃণমূল নেত্রী পায়েল ভট্টাচার্য।

খবর পেয়েই বোলপুর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে ওই যুবককে আটক করে ও কার্তুজ ভরা নাইন এম এম পিস্তল বাজেয়াপ্ত করে।

ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে বোলপুর থানার পুলিশ।

সূত্র : আজকাল

আরও পড়ুন ::

Back to top button