কলকাতা

‘মানবিক’ মীর! থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত শিশুর প্রাণ বাঁচাতে রক্তদান শিল্পীর

‘মানবিক’ মীর! থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত শিশুর প্রাণ বাঁচাতে রক্তদান শিল্পীর - West Bengal News 24

মানুষ হয়ে জন্মে মানুষের পাশে থাকাটাই মানবিকতা। কেবল ব্যক্তি স্বার্থ কখনই মানবজাতির উদ্দেশ্য হাওয়া উচিত নয়। করোনা কালে (Corona Virus) মানুষের পাশে দাঁড়াতে এগিয়ে আসছেন বহু মানুষ। করোনা মহামারীর (Covid Pandemic) এই দুর্দিনে মানবিকতার পরিচয় দিলেন কৌতুক শিল্পী- সঞ্চালক- অভিনেতা মীর আফসার আলী (Mir Afsar Ali)। থ্যালাসেমিয়া (Thalassemia) আক্রান্ত এক শিশুর জন্যে রক্ত দান করলেন মীর।

রোগীর নাম দীপ হালহার। পরিবারের আর্থিক অবস্থা একেবারেই ভালো নয়। থ্যালাসেমিয়া নিয়ে জন্মগ্রহণ করায় শিশুর বাবা মা তাকে ছেড়ে চলে গিয়েছেন। দাদু ঠাকুমার কাছে মানুষ হচ্ছে দীপ। নির্দিষ্ট সময় ব্যবধানে তার শরীরে রক্তের প্রয়োজন পড়ে। কিন্তু সেই রক্ত জোগাতে হিমশিম খায় বৃদ্ধ দাদু ঠাকুমা। দাদু রিকশা চালান।

ঠাকুমা লোকের বাড়িতে কাজ করেন। কতো পয়সাই বা রোজগার হয় দিনের শেষে। তাতেই চিকিৎসা চালাচ্ছেন নাতির। গতবছর লকডাউনের (Lockdown) সময় নাতির জন্যে রক্তের খোঁজে পায়ে হেঁটে সোনারপুর থেকে কলকাতায় এসেছিলেন ঠাকুমা। হন্যে হয়ে খুঁজছিলেন রক্ত। এই বছরেও সাময়িক লকডাউন চলছে।

বন্ধ ট্রেন সহ গাড়ি পরিবহন ব্যবস্থা। এরমাঝেই প্রয়োজন নাতির জন্যে রক্তের। কোথা থেকে জোগাবে রক্ত? মাথায় হাত পরিবারের। পরিবারের পাশে দাঁড়াতে এগিয়ে এসেছেন মীর। থ্যালাসেমিয়া আক্রান্ত দীপের জন্যে রক্ত দান করলেন মীর।

মীর ((Mir Afsar Ali) বরাবরই চুপিসারে মানুষের সহায়তা করতেই পছন্দ করতেন। ঢাক ঢোল পিটিয়ে লোক দেখিয়ে উপকর করা না পসন্দ তার। সেই পথই অনুসরণ করেন তিনি। তবে তিনি মনে করেন মাঝে মধ্যে মানুষকে মানবিকতার কাজে উৎসাহ অনুপ্রেরণা দেওয়া প্রয়োজন।

সেই কারণেই মীরের রক্ত দানের মুহূর্তের ছবি শেয়ার করেছেন ব্লাড মেটস সংস্থা। এই সংস্থাতেই রক্তদান করেছেন তিনি। তার এই ছবি আরও পাঁচজনকে উৎসাহ দেবে, অনুপ্রেরণা দেবে। তারাও এগিয়ে আসবেন মানবিক উদ্যোগে। এই উদ্দেশেই ব্লাড মেটস সংস্থা শেয়ার করেছেন মীরের রক্ত দানের ছবি। মীরকে ধন্যবাদও জানিয়েছে এই সংস্থা।

সূত্র: কলকাতা ২৪*৭

মন্তব্য করুন ..

আরও পড়ুন ::

Back to top button