রাজ্য

হাসপাতাল থেকে ছুটি পেয়ে ফের অসুস্থ মদন, ফেসবুকে লাইভ শেষে পথে নেমেই শ্বাসকষ্ট

হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর ফের অসুস্থ তৃণমূল বিধায়ক মদন মিত্র (Madan Mitra)। রয়েছেন ভবানীপুরের বাড়িতে। ফের তাঁর শ্বাসকষ্ট শুরু হয়েছে। কষ্ট কমাতে ইনহেলার নিয়েছেন তিনি। ক্লান্তির জেরে ভবানীপুরের বাড়িতে পৌঁছে ঘর অবধিও পৌঁছতে পারেননি এই দাপুটে নেতা। বারান্দায় একটি চেয়ারে বসিয়েই চলছে প্রাথমিক চিকিত্‍সা। পরবর্তী সময় বাড়িতে রেখেই তাঁর চিকিত্‍সা হবে নাকি হাসপাতালে বিয়ে যাওয়া হবে তাঁকে, তা নিয়ে এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি।

পরিবার সূত্রে খবর, প্রাথমিকভাবে অক্সিমিটার দিয়ে অক্সিজেনের স্যাচুরেশন মাপা হয়েছে মদনবাবুর। বাড়িতে সুগার পরীক্ষাও করা হয়েছে তাঁর। শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হলে ফের চিকিত্‍সকদের পরামর্শ নেওয়া হবে বলে খবর।

রবিবার বেলার দিকেই এসএসকেএম হাসপাতাল থেকে ছুটি পান কামারহাটির তৃণমূল বিধায়ক। লাল ধুতি-পাঞ্জাবি-সানগ্লাস পরে গান গাইতে গাইতে খোশমেজাজে হাসপাতাল থেকে বের হন তিনি। এমনকী, হাসপাতাল চত্বর থেকেই ফেসবুক লাইভ করে অনুগামীদের উদ্দেশে বার্তা দেন মদনবাবু। এর পর রীতিমতো নিজে হুডখোলা গাড়ি চালিয়ে মাজারে পৌঁছন। সেখানে প্রার্থনাও করেন তিনি।

মাজার থেকে বেরিয়ে অনুগামীদের সঙ্গে কথা বলতে বলতেই অসুস্থবোধ করতে শুরু করেন তৃণমূল নেতা। শুরু হয় শ্বাসকষ্ট। চোখে মুখে জল দেওয়া হয় তাঁর। পরে হুডখোলা জিপ ছেড়ে শীতাতপনিয়ন্ত্রিত একটি গাড়িতে চড়ে ভবানীপুরের বাড়িতে পৌঁছন তৃণমূল নেতা। কিন্তু অত্যাধিক ক্লান্তি বোধ করায় ঘর অবধি পৌঁছতে পারেননি তিনি। বারান্দায় বসে পড়েন।

অসুস্থ হওয়ার পর তৃণমূল বিধায়ক জানান, রবিবার দুুপুরেই তাঁর কামারহাটি যাওয়ার কথা ছিল। সেখানে সেফহোম সংক্রান্ত কাজ এবং অনুগামীদের সঙ্গে দেখা করার কথা ছিল তাঁর। কিন্তু অসুস্থতার জেরে আগামী ৭২ ঘণ্টাও সেখানে তিনি যেতে পারবেন না হয়তো।

সুত্র : সংবাদ প্রতিদিন

আরও পড়ুন ::

Back to top button