রাজ্য

পরিবেশ দফতরকে ১৫ কোটি ম্যানগ্রোভ লাগানোর নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর

আমফানের পর ইয়াস। বছর বছর প্রকৃতির তাণ্ডব দেখছে দক্ষিণবঙ্গ। ঘূর্ণিঝড়ের দাপটে তছনছ হয়ে যাচ্ছে উপকূল এলাকা। আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস থাকলেও প্রাকৃতিক দুর্যোগ এড়ানো সম্ভব নয়। তবে ক্ষয়ক্ষতি আটকানোর উদ্দেশ্যে এবার বড়সড় ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা এবং মেদিনীপুর অঞ্চলে মোট ১৫ কোটি ম্যানগ্রোভ গাছ লাগানোর নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

বুধবার এক সাংবাদিক বৈঠকে রাজ্যের পরিবেশ দফতরকে এই নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। ম্যানগ্রোভ গাছ লাগানো হলে প্রকৃতির রোষের হাত থেকে অনেকটাই রক্ষা পাওয়া যাবে বলে মনে করা হচ্ছে। এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন পরিবেশ দফতরের উদ্যোগেই ১৫ কোটি ম্যানগ্রোভ লাগানো হবে। সেই সঙ্গে বন দফতর এবং দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদকেও এ ব্যাপারে হাত লাগাতে বলেছেন তিনি।

জানা গেছে, ৫ কোটি ম্যানগ্রোভ দক্ষিণ ২৪ পরগনার সুন্দরবন অঞ্চলে, ৫ কোটি ম্যানগ্রোভ উত্তর ২৪ পরগনায় এবং আরও ৫ কোটি ম্যানগ্রোভ লাগানো হবে দিঘা ও তত্‍সংলগ্ন মেদিনীপুর অঞ্চলে। দিঘায় ম্যানগ্রোভ লাগানো হলে খেজুরি নন্দীগ্রাম প্রভৃতি এলাকা অনেকটা সুরক্ষিত থাকবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। বলেছেন স্বচ্ছতার সঙ্গে এই কাজ করতে হবে।

গত বছর আমফানের পরেও ম্যানগ্রোভ গাছ লাগানোর উদ্যোগ নিয়েছিল রাজ্য সরকার। সেবার মোট ৫ কোটি গাছ লাগানো হয়েছিল। তারপর এবছর ইয়াসের তাণ্ডবে দেখা গেছে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে দিঘা মন্দারমণি সুন্দরবন অঞ্চলে। মুখ্যমন্ত্রী নিজে গিয়ে সেসব অঞ্চলের অবস্থা দেখা এসেছেন। তারপরেই গতবারের উদ্যোগকে এবার আরও বড় করার কথা ভেবেছেন তিনি।

সুত্র :দ্য ওয়াল

আরও পড়ুন ::

Back to top button