জাতীয়

দেশে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ৯২ হাজারের বেশি, মৃত্যু ২১২৩

টানা দু’মাস তিন দিন পর গতকাল লাখের নীচে নেমেছিল দৈনিক কোভিড সংক্রমণ। মৃত্যুহার নিয়ে চিন্তা থাকলেও দেশের কোভিড গ্রাফে এই ইতিবাচক পতন নিঃসন্দেহে মনোবল বাড়িয়েছে দেশবাসীর। তবে এদিন আবার গতকালের থেকে খানিকটা বাড়ল দৈনিক কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা। কেন্দ্র সরকারের প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৯২ হাজার ৫৯৬ জন।

গতকাল এই সংখ্যাটা ছিল ৮৬ হাজার ৪৯৮। এই নিয়ে দেশের মোট আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছলো ২ কোটি ৯০ লক্ষ ৮৯ হাজার ৬৯ জন। গতকালের থেকে খানিকটা বেড়েছে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যাও। গতকাল যেখানে দেখা গিয়েছিল একদিনে কোভিডের বলি হয়েছেন ২ হাজার ১২৩ জন, সেখানে আজকের পরিসংখ্যান বলছে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা ২ হাজার ২১৯। এই নিয়ে করোনায় দেশের মোট মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে হল ৩ লক্ষ ৫৩ হাজার ৫২৮ জন।

বুধবার বেশ কিছুটা কমেছে পজিটিভিটি হারও। আজকের কোভিড সক্রিয়তার হার ৪.৬৭ শতাংশ। এই নিয়ে টানা ১৬ দিন ধরে করোনা সক্রিয়তার হার রয়েছে ১০ শতাংশের নীচে। রাজ্য ভিত্তিক সংক্রমণের দিকে চোখ রাখলে দেখা যাচ্ছে বরাবরের মতো এদিনও সংক্রমণের শীর্ষে রয়েছে মহারাষ্ট্র। এই রাজ্যেই করোনার দ্বিতীয় ঢেউ সবথেকে বেশি ধ্বংসাত্মক রূপ নিয়েছে।

আর মহারাষ্ট্রের পরে রয়েছে যথাক্রমে কর্ণাটক, কেরালা, তামিলনাড়ু, অন্ধ্রপ্রদেশ। এই পরিস্থিতিতে ভ্যাকসিনেশনকেই অস্ত্র করতে চাইছে সরকার। পাশাপাশি গণটিকাকরণে গতি আনতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ঘোষণা করেছেন, দেশের প্রত্যেককে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। কোনও রাজ্যের থেকে অর্থ নেওয়া হবে না। ভ্যাকসিনেশনে সম্পূর্ণ দায়িত্ব কেন্দ্রের।

সুত্র : দ্য ওয়াল

আরও পড়ুন ::

Back to top button