ঝাড়গ্রাম

সরকারি আবাসনের পরিচারিকা, সাফাই কর্মীদের করোনার প্রতিষেধক

স্বপ্নীল মজুমদার

ঝাড়গ্রাম: সরকারি আবাসনের আবাসিকদের বাড়িতে যাঁরা পরিচারক-পরিচারিকা ও সাফাই কর্মীর কাজ করেন, এবার তাঁদেরও করোনার প্রতিষেধক দেওয়া হল। সেই সঙ্গে আবাসনের পাম্প অপারেটর, সিকিউরিটি গার্ড, আবাসনে নির্মাণকাজে নিযুক্ত কর্মীরাও প্রতিষেধক পেলেন।

ঝাড়গ্রাম শহরের বাছুরডোবা এলাকার সরকারি হাউসিং কমপ্লেক্সে বিভিন্ন সরকারি দফতরের আধিকারিক ও কর্মীরা থাকেন। আবাসনের দেখভালের দায়িত্বে থাকা এবং বিভিন্ন পরিষেবা দেওয়ার কাজে যুক্তদের পাশাপাশি, সাফাইকর্মী, পরিচারক ও পরিচারিকারদের প্রতিষেধক দেওয়ার জন্য পুরসভার কাছে আবেদন করেছিল আবাসন কল্যাণ সমিতি। ওই সমিতির সম্পাদক তথা জনস্বাস্থ্য কারিগরি বিভাগের জুনিয়র ইঞ্জিনিয়র জয়ন্ত ঘোষাল জানান, পুরসভার প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ৬৯ জনকে প্রতিষেধক দেওয়া হয়েছে।

আবাসনের পরিচারিকা সরলা চৌধুরী, মিনা বেজ, ঝুমা ঘোষ, শকুন্তলা ধাড়া, শান্তি বাগ, সাফাই কর্মী মেঘনাথ মুখী, পাম্প অপারেটর বিমল দে, সিকিউরিটি গার্ড চন্দন প্রধান, শিবু দাস, নির্মাণ কর্মী পশুপতি রায়, পিন্টু প্রসাদরা প্রতিষেধক পেয়ে রীতিমতো স্বস্তি পেয়েছেন।

জয়ন্তবাবু জানান, আবাসনের পরিচারিকা, সাফাই কর্মী সহ ৬৯ জনের তালিকা পুরসভার নির্বাহী আধিকারিক তুষারকান্তি সৎপথীর কাছে পাঠানো হয়। এরপরই পুরসভার জনস্বাস্থ্য বিভাগ ও স্বাস্থ্য দফতরের সহযোগিতায় প্রতিষেধক দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়।

আরও পড়ুন ::

Back to top button