টলিউড

নারী শক্তিশালী হলেই তাকে অন্য নজরে দেখে সবাই : নুসরাত

নুসরাত জাহানকে নিয়ে হাজারো রটনা। এ দিকে বরাবরই তিনি নিজের ইচ্ছেতে জীবন কাটাতে ভালবাসেন। তাই কি তাঁকে নিয়ে এত বিতর্ক? এমন প্রশ্ন নুসরত নিজেই তুলে দিলেন মঙ্গলবারের ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে। আন্তর্জাতিক মানের কবি সাবা খোদিরের পংক্তি ধার করে। কবির সুরে সুর মিলিয়ে যেন সাংসদ-অভিনেত্রী বলতে চাইলেন, ‘নারীকে সবার পরামর্শ, শক্তিশালী হও।

সেই নারী আপন শক্তিতে নিজের অবস্থান বদলালেই সমাজের চোখে তার পরিচয় বদলে যায়! তার নামের পাশে তখন নানা তকমা। তত ক্ষণে সেই নারী নিজের ক্ষমতায় ক্ষমতাশালী। ফলে, যতই তাকে দমিয়ে রাখার চেষ্টা করা হোক, সে কারওর কথাই শুনবে না’!

ইনস্টাগ্রাম স্টোরি বলছে, এই পংক্তির হাত ধরে কোথাও যেন সাবা খোদির আর নুসরত জাহান মিলেমিশে একাকার। অনুরাগীরাও এই স্টোরি দেখে প্রশ্ন তুলেছেন, নুসরত কি ঘুরিয়ে নিজের বর্তমান পরিস্থিতির কথাই বললেন? উত্তর জানা নেই। তবে সাংসদ-তারকার জীবনে ঘটে যাওয়া একের পর এক ঘটনা প্রমাণ করে দিয়েছে, মানসিক দিক থেকে তিনিও প্রচণ্ড দৃঢ়।

নিখিল জৈন বিতর্ক, গর্ভনিরোধক বিজ্ঞাপনের মুখ হওয়া, যশ দাশগুপ্তের সঙ্গে সম্পর্ক—- এত গুলো ঘটনার কারণে ইতিমধ্যেই সাংসদ-তারকা বিরোধী শিবিরের কটাক্ষের শিকার। তার পরেও নুসরত নিজের বিশ্বাসে অটল।

নুসরতের ইনস্টাগ্রাম স্টোরি

সুত্র : আনন্দবাজার

 

আরও পড়ুন ::

Back to top button