খেলা

এবার শূন্য হাতে ফিরতে চায় না আর্জেন্টিনা

একটি ট্রফি যেমন লিওনেল মেসির দরকার, তেমন আর্জেন্টিনারও। সেই কবে বিশ্বকাপ জিতল তারা, কোপা জিতেছে সর্বশেষ ১৯৯৩ সালে। এরপর আর দেখা দেয়নি বড় কোনো শিরোপা। তাই তো এবার আর শূন্য হাতে ফিরতে চায় না আর্জেন্টিনা।

রোববার কোয়ার্টারে ইকুয়েডরকে হারানোর পর দলনেতা মেসির কণ্ঠে তেমন আভাসই মিলল, ‘আমি সবসময় বলে আসছি ব্যক্তিগত অর্জন আমার কাছে গৌণ, আমরা এখানে এসেছি কিছু একটা করতে। আমাদের একটি টার্গেট আছে। আপাতত সেদিকেই সবার নজর।’

এক এক করে গ্রুপ পর্ব, কোয়ার্টারের বাধা মাড়িয়ে সেমিতে ওঠা। এর পেছনে পুরো দলকেই অভিনন্দন জানাচ্ছেন মেসি। প্রশংসা করেছেন সবার, ‘আমি সবাইকে অভিনন্দন জানাচ্ছি। বেশ কিছুদিন হলো আমরা সবাই পরিবার থেকে আলাদা। আমাদের লক্ষ্য নিয়ে এগোতে হবে।’

গ্রুপ পর্বে এই ইকুয়েডরের সঙ্গে ড্র করে ব্রাজিল। তাই কোয়ার্টারে তাদের মুখোমুখি হয়ে কিছুটা শঙ্কিত ছিল আর্জেন্টিনাও। ম্যাচের পর যেমনটা বলেছিলেন মেসি, ‘কঠিন একটা ম্যাচ ছিল। আমরা তাদের শক্তিমত্তাও জানতাম। আসলে যতক্ষণ অবধি আমরা লক্ষ্যে না যেতে পারব ততক্ষণ এটা আমাদের জন্য কঠিন যুদ্ধ। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো, আমরা ফাইনাল থেকে আর এক ধাপ পেছনে আছি।’

সেমিতে প্রতিপক্ষ কলম্বিয়া। সেই বাধা টপকে শিরোপা মঞ্চে মাথা উঁচিয়ে দাঁড়াতে চান মেসিরা। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিলের মাঠে শেষ পর্যন্ত কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়তে চান তারা। যদিও মেসি বলছেন পরিবেশ, কন্ডিশন তাদের খুব একটা সাহায্য করবে না।

আরও পড়ুন ::

Back to top button