আন্তর্জাতিক

থাইল্যান্ডের একটি কারখানায় বড় ধরনের বিস্ফোরণ

থাইল্যান্ডের ব্যাংককের উপকণ্ঠে একটি কারখানায় বড় ধরনের বিস্ফোরণে কেঁপে উঠেছে রাজধানীর সুবর্ণভূমি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের টার্মিনাল। সোমবার সকালের এই বিস্ফোরণে একজন নিহত ও ২৭জন আহত হয়েছেন। বিস্ফোরণের পরপরই ঘটনাস্থলের আশপাশ থেকে বাসিন্দাদের সরিয়ে ফেলা হয়।

খবরে বলা হয়েছে, ফোম ও প্লাস্টিক প্যালেট কারখানায় অগ্নিকাণ্ড শুরু হয় সোমবার ভোর ৩টার দিকে। ব্যাংককের সুবর্ণভূমি বিমানবন্দরের অল্প কিছু দূরে এই কারখানা অবিস্থত।

ব্যাংককের স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, প্রাথমিক বিস্ফোরণে সুবর্ণভূমি বিমানবন্দরের টার্মিনাল কেঁপে যায়। এতে ব্যাংককের প্রধান আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সতর্ক বার্তা বেজে ওঠে।

বিমানবন্দরের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, কোনও ফ্লাইট বাতিল করা হয়নি।

ব্যাং প্লাই জেলার প্রধান বলেন, আহত হয়েছেন ২৭ জন। বেশিরভাগের শরীর কেটে গেছে। মৃত ব্যক্তি ছিলেন দমকলকর্মী।

তিনি জানান, দুটি আশ্রয় কেন্দ্রে প্রায় ৫০০ বাসিন্দাকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। বয়স্কদের ৯ কিলোমিটার দূরে একটি স্কুলে রাখা হয়েছে।

বিস্ফোরণস্থলের ৫০০ কিলোমিটার এলাকায় মানুষকে প্রবেশ না করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

লেফটেন্যান্ট জেনারেল আমপুন বুয়ারুনপর্ন বলেন, আমরা জানি না বিস্ফোরিত হওয়ার মতো কিছু রয়েছে কিনা। আশঙ্কা করা হচ্ছে কয়েক হাজার লিটার রাসায়নিক পদার্থ আবারও বিস্ফোরণ ঘটাতে পারে।

একজন স্বেচ্ছাসেবক জানান, কারখানার ভেতরে জীবিত কাউকে খুঁজে বরার উদ্যোগ মন্থর গতিতে আগাচ্ছে। তিনি বলেন, আমরা আহতদের খুঁজছি। কিন্তু আগুনের শিখা অনেক উঁচুতে। ফলে সময় লাগছে।

অগ্নিকাণ্ডের কারণ সম্পর্কে কিছু জানা যায়নি। কারখানাটির তাইওয়ানভিত্তিক কোম্পানির কোনও বক্তব্য জানা যায়নি।

আরও পড়ুন ::

Back to top button