রাজ্য

ভুয়ো ভ্যাকসিন কাণ্ডে এখনই সিবিআই তদন্ত নয়,জানালো আদালত

ভুয়ো ভ্যাকসিন কাণ্ডে সিবিআই তদন্ত নিয়ে নতুন নির্দেশ দিল আদালত। আদালতের নির্দেশে এখনই সিবিআই তদন্ত হচ্ছে না। রাজ্য পুলিশের তদন্তে কোনও ত্রুটি খুঁজে না পাওয়ায় এমন সিদ্ধান্ত আদালতের। তবে অদূর ভবিষ্যতে প্রয়োজনে সিবিআই তদন্ত হতে পারে এমন ইঙ্গিতও দিয়েছে আদালত।

ভুয়ো ভ্যাকসিন কাণ্ডে মোট চার ধরনের জনস্বার্থ মামলা দায়ের হয়েছিল কলকাতা হাইকোর্টে। তার মধ্যে একটি মামলা খারিজ হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু বিজেপি নেতা তরুণজ্যোতি তিওয়ারি, তাপস মাইতি ও আইনজীবী সন্দীপন দাসের করা বাকি তিনটি মামলা চলছিল। সেই আবেদনেরই শুনানি ছিল আজ।

এই শুনানির সঙ্গেই এদিন আদালত স্পষ্ট করে দেয় যে, ভুয়ো ভ্যাকসিন কাণ্ডে রাজ্য যে পথে তদন্ত করেছে তাতে সন্তুষ্ট আদালত। তাই আপাতত সিবিআই তদন্তের প্রয়োজন নেই। সেই একই সঙ্গে জানায়, রাজ্য যেভাবে তদন্ত চালাচ্ছিল সেভাবে তদন্ত চালিয়ে যাবে। রাজ্যের তদন্তে এই মুহূর্তে কোনওরকম হস্তক্ষেপ করবে না আদালত।

প্রসঙ্গত, গত ২২ জুন প্রথম কসবা ভুয়ো ভ্যাকসিন কাণ্ডের ঘটনা প্রকাশ্যে আসে। এই ঘটনায় মূল অভিযুক্ত দেবাঞ্জন দেবকে তড়িঘড়ি গ্রেফতার করে পুলিশ। তদন্তে গতি আনতে লালবাজারের তরফে সিট গঠন করা হয়। আদালত কক্ষে শুনানি চলাকালীন অ্যাডভোকেট জেনারেল কিশোর দত্ত বলেন, “খুব দ্রুতই ভুয়ো ভ্যাকসিন মামলায় চার্জশিট পেশ করা হবে। কয়েকটি রিপোর্টের জন্য অপেক্ষা করা হচ্ছে।”

একই সঙ্গে তিনি জানান, “গত ৩০ শে জুন পর্যন্ত এই ঘটনায় চারজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ৫০ জনের বয়ানও নথিবদ্ধ করা হয়েছে। দু’জনের গোপন জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়েছে।”

বস্তুত, ভুয়ো ভ্যাকসিন কাণ্ডের মূল পান্ডা দেবাঞ্জন দেবের সঙ্গে শাসকদলের একাধিক নেতার ছবির প্রসঙ্গও এদিন উঠে আসে আদালত কক্ষে। তবে এই অভিযোগ আদৌ পোক্ত কি না তা বোঝাতে গিয়ে অ্যাডভোকেট জেনারেল উদাহরণ হিসাবে তুলে আনেন রাজ্যপাল ও প্রধানমন্ত্রীর প্রসঙ্গও।

তিনি বলেন, রাজ্যপালের সঙ্গেও দেবাঞ্জনের দেহরক্ষীর ছবি রয়েছে। তা হলে কি রাজ্যপালকেও কাঠগড়ায় তোলা হবে? প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে একটি ভ্যাকসিনেশন ক্যাম্পে একজন মহিলার ছবি দেখা গিয়েছিল। অথচ ওই মহিলা দাবি করেছিলেন, তিনি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কখনও দেখাই করেননি।

তা হলে কি প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে আইনি লড়াই চলবে? এজলাসে কিশোর দত্ত সওয়াল করেন, “এটাই কি ভারতের আইন?” এই শুনানির পর ভুয়ো ভ্যাকসিনকাণ্ড নিয়ে বিভিন্ন জনস্বার্থ মামলাগুলির নিষ্পত্তি করে আদালত।

সূত্র : এই মুহুর্তে

আরও পড়ুন ::

Back to top button