বলিউড

‘দ্বিতীয় বিয়ে আমার জীবনের সবথেকে বড় ভুল’, আক্ষেপ করেছিলেন দিলীপ কুমার

সাইরা বানু এবং দিলীপ কুমারের প্রেমের সম্পর্ক সকলেরই জানা। দিলীপ কুমারের থেকে সাইরা বানুর বয়সের ব্যবধান ছিল তাঁর বয়সেরও অর্ধেক। সেই দিলীপ কুমার দ্বিতীয় বিয়েও করেছিলেন। কিন্তু সেই বিয়ে নিয়ে আক্ষেপ প্রকাশ করে বলেছিলেন, ‘এটা আমার জীবনের সবথেকে বড় ভুল।’

দিলীপ কুমার যখন সিনেমা জগতে পথ চলা শুরু করেন, সেই ১৯৪৪ সালেই জন্ম হয় সাইরার। সাইরা বড় হয়েছেন দিলীপ কুমারের সিনেমা দেখতে দেখতে। কৈশোর বয়সেই প্রেমে পড়েন অভিনেতার। মনে মনে ঠিক করেন, দিলীপকেই বিয়ে করবেন। সাইরা মুঘল-ই-আজমের প্রিমিয়ারে পৌঁছে গেছিলেন অভিনেতাকে একটিবার দেখার জন্য। কিন্তু দিলীপ কুমার সেখানে আসেননি। সাইরার মন ভেঙে যায়। কিন্তু তার ঠিক দু’বছর পরে সাইরা দিলীপের সঙ্গে দেখা করেন।

সাইরা যখন নিজেই অভিনেত্রী হয়ে উঠলেন, দিলীপ কুমার তাঁর সঙ্গে অভিনয় করতে আপত্তি জানান। দিলীপ বলেছিলেন, এত ছোট বয়সী একজন মহিলা তাঁর বিপরীতে মানাবে না। কোনওভাবেই মিশতে চাননি তিনি সাইরার সঙ্গে।

কিন্তু একদিন সাইরাকে শাড়ি পরে তাঁর বাড়ির সামনে দেখেন। মুহূর্তের মধ্যে দিলীপের মন বদলে যায়। সাইরাকে দেখে তাঁর মনে হয়, তাঁর বয়স মোটেই তাঁর বয়সের অর্ধেক হতে পারে না। সেদিনই দিলীপের মন থেকে বয়সের ব্যবধান দূর হয়ে যায়। সাইরার প্রেমে পড়ে যান দিলীপ।

১৯৬৬ সালে দিলীপ সাইরা বানুকে বিয়ে করেন। দিলীপের তখন বয়স ৪৪ এবং সাইরার মাত্র ২২। কিন্তু ১৯৭৪ সালে একটি ক্রিকেট ম্যাচের ময়দানে দেখা হয় অন্য একজন মহিলার সঙ্গে। সাইরার সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদ না করেই, বিয়ে করেন আসমা রেহমান নামের এক মহিলাকে। কিন্তু সেই সম্পর্ক বেশিদিন টেকেনি। মাত্র দু’বছর পরই সাইরার কাছে ফিরে আসেন দিলীপ।

একটি সাক্ষাৎকারে দিলীপ বলেছিলেন, ‘আমার জীবন থেকে যদি কিছু মুছে ফেলতে হয়। তাহলে আমি ওই দ্বিতীয় বিয়ে মুছে ফেলতে চায়। ওই সিদ্ধান্ত আমার জীবনের সব থেকে বড় ভুল। আমি সাইরার সঙ্গে ঠিক করিনি।’

অপর একটি সাক্ষাৎকারে সাইরা বানু বলেন, ‘দিলীপ কুমারকে অনেক সুন্দরী মহিলাই বিয়ে করতে চাইতেন। এটা স্বাভাবিক। কিন্তু ছোট থেকে আমার স্বপ্ন ছিল দিলীপ কুমারের স্ত্রী হয়ে ওঠা। এত মহিলার মধ্যেও তিনি সব সময় আমাকেই বেছে নিয়েছেন। এর জন্য আমি গর্ববোধ করি।’

দিলীপ-সাইরার এই সম্পর্কের ভিত্তি অনেকের কাছেই অনুপ্রেরণা। ভালবাসার কাছে বয়স যে কোনও বাধাই নয়। সেটা দিলীপ-সাইরার সম্পর্কই বড় প্রমাণ।

আরও পড়ুন ::

Back to top button