রাজনীতিরাজ্য

‘‌আগের জন্মে অন্যায় করেছিলাম, বিজেপির যন্ত্রণা সহ্য করতে হচ্ছে’‌: অনুব্রত মণ্ডল

সুরজিত্‍ ঘোষ হাজরা

“আগের জন্মে নিশ্চয়ই কিছু অন্যায় করেছিলাম তাই পরপর দুবার কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের শাসনের যন্ত্রণা সহ্য করতে হচ্ছে”, জেলা কমিটির বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে বিজেপিকে এমনভাবে কটাক্ষ করলেন বীরভূম জেলা তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল।

তিনি বলেন যে ভারতবর্ষ পুরো শেষ হয়ে গেল। পেট্রোল ডিজেলের দাম ১০০ টাকা অতিক্রম করে গেছে, রান্নার গ্যাসের দামেও আগুন। খুব দুর্ভাগ্য যে দেশে প্রধানমন্ত্রী নাম নরেন্দ্র মোদি। তবে আসন্ন ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির ডোঙা গঙ্গার জলে উল্টে যাবে বলে কটাক্ষ করেন তিনি। তবে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য ও পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ আন্দোলন চলবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

রবিবার বিকেলে বোলপুরের তৃণমূল কার্যালয়ে জেলা কমিটির বৈঠকে অনুব্রত মণ্ডল ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন জেলার দুই সাংসদ শতাব্দী রায় ও অসিত মাল। লাভপুরের বিধায়ক অভিজিত্‍ সিংহ সহ বীরভূম জেলার বিভিন্ন ব্লকের সভাপতি ও পুরসভার চেয়ারম্যানরা।

এবারের জেলা কমিটির বৈঠকে বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে তৃণমূল কংগ্রেস সূত্রে। আগের জেলা কমিটির বৈঠকে যে সমস্ত নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল তা পালন করা হয়েছে কিনা তা এবারে পর্যালোচনা করা হয়েছে। হেরে যাওয়া বুথের বুথ সভাপতির বদল করে, কার নাম প্রস্তাব করা হয়েছে ও হেরে যাওয়া অঞ্চল সভাপতিদের পরিবর্তন করা হয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হয়েছে এই বৈঠকে।

তবে যে সমস্ত বুথের অঞ্চলের সভাপতি পরিবর্তন করা হয়েছে সেগুলিকে কাদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে তাঁর নাম পাঠাতে হবে জেলা নেতৃত্বকে। তবে জেলার বেশকিছু অঞ্চলের দায়িত্ব প্রাপকদের নাম জেলা নেতৃত্ব ঠিক করে দিয়েছে এদিনের বৈঠকে বলে জানা গিয়েছে তৃণমূল সূত্রে।

আসন্ন পুরসভা ভোটের আগাম প্রস্তুতি নেওয়ার কথা বলা হয়েছে এবারের জেলা কমিটির বৈঠকে। সমস্ত পঞ্চায়েতের প্রধান দেশ কড়া নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ভালোভাবে কাজ করার জন্য। পাশাপাশি স্বচ্ছতা বজায় রাখার বার্তা দেওয়া হয়েছে শীর্ষ নেতৃত্ব থেকে। কোনও রকম কোন দুর্নীতিকে প্রশ্রয় দেওয়া যাবে না। দুর্নীতির কোন খবর জানা থাকলে বিষয়টি সংশ্লিষ্ট এলাকার বিধায়ককে জানাতে হবে।

এবার থেকে যা কিছু সিদ্ধান্ত গৃহীত হবে তার আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে হবে বলে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এলাকার তৃণমূলস্তর থেকে দলের সংগঠনকে মজবুত করার বার্তা দেওয়া হয়েছে এই দিনের বৈঠকে। তবে জেলার বিভিন্ন ব্লকের সভাপতিদের সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে বিধায়কের সাথে আলোচনা করে তবেই সে সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে এমনটাই জানা গেছে দলীয় সূত্রে।

সূত্র : আজকাল

আরও পড়ুন ::

Back to top button