পুরুলিয়া

দিলীপ ঘোষকে ‘অন্ধ ধৃতরাষ্ট্র’ বলে কটাক্ষ, সাসপেন্ড তিন BJP নেতা

নির্বাচনের পরেই দলের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা নিয়ে কড়া পদক্ষেপ নেওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছিল বঙ্গ বিজেপি। আর সেই সুত্রেই এবার তিন নেতাকে সাসপেন্ড করল গেরুয়া শিবির। পুরুলিয়া জেলার এসসি মোর্চার সাধারণ সম্পাদক স্বপন বাউরি, কাশীপুর বিধানসভা কেন্দ্রের আইনি সেলের কনভেনার শুভদীপ প্রামাণিক এবং বলরামপুরের মণ্ডল সভাপতি অশ্বিনী সিং সর্দারকে বাইরের রাস্তা দেখিয়েছে বঙ্গ বিজেপি।

পুরুলিয়া জেলার বিজেপির সাধারণ সম্পাদক তথা কাশীপুরের বিজেপি বিধায়ক কমলাকান্ত হাঁসদা বলেন, স্বপন বাউরি দলের নির্দেশ অমান্য করে বিধানসভা নির্বাচনে নির্দল প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন। অশ্বিনী সিং সরকার বলরামপুর বিধানসভা কেন্দ্রের দলের নির্দেশ অমান্য করে নির্দল প্রার্থী হয়েছিলেন। শুভদীপ দীর্ঘদিন ধরে সোশ্যাল মিডিয়ায় দলীয় নেতাদের সম্পর্কে বিতর্কিত মন্তব্য করে আসছেন। এই কারণেই এদের দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

বহিস্কারের পর বিজেপির বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন ওই তিন নেতা। স্বপনবাবু বলেন, ‘দলের পুরনো আর প্রকৃত কর্মীদের মর্যাদা দেওয়া হচ্ছে না। দুর্নীতিতে যুক্ত নেতাদের বিধানসভার টিকিট দেওয়া হয়েছিল। শয়তানদের দলে ঢুকিয়ে দলকে শেষ করে দেওয়া হয়েছে। টাকা দিয়ে টিকিট নিলাম হয়েছে।” স্বপনবাবু বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে অন্ধ ধৃতরাষ্ট্র বলে কটাক্ষও করেছেন।

আরেকদিকে বহিষ্কৃত বিজেপি নেতা শুভদীপবাবু বলেন, আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ আনা হচ্ছে। আমি সোশ্যাল মিডিয়ায় দল অথবা দলীয় নেতাদের বিরুদ্ধে কোনও মন্তব্যই করিনি। অন্যদিকে, অশ্বিনী সিং স্বপনবাবুর সুরে সুর মিলিয়ে প্রায় একই কথা বলেন। তিনি বলেন, দলে পুরনো কর্মীদের মর্যাদা নেই বলে গত বিধানসভায় নির্দল প্রার্থী হয়েছিলাম।

সূত্র : বাংলা হান্ট

আরও পড়ুন ::

Back to top button